সোমবার, ২৭ জুন ২০২২, ০৫:৪১ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
খুলনায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গৌরবের ১০১তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর অনুষ্ঠান ০১জুলাই পদ্মা সেতুতে মোটরসাইকেল চলাচল নিষিদ্ধ ঘোষণা পদ্মা সেতুতে হ-য-ব-র-ল অবস্থা : নাটবোল্ট খোলা যুবক বিএনপি কর্মী বাইজীদ আটক খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে সিটিজেন চার্টার এন্ড জিআরএস-১ শীর্ষক প্রশিক্ষণ টেকসই অর্থায়ন বিষয়ক প্রশিক্ষণ ও সচেতনতামূলক কর্মশালা অনুষ্ঠিত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রদল নেত্রী রুমার বাড়িতে হামলা,  জেলা ছাত্রদলের নিন্দা  নগরীতে হিজড়া ও লিঙ্গ বৈচিত্রময় জনগোষ্টির বৈষম্য দুরীকরনে নেটওয়ার্কিং মিটিং অনুষ্ঠিত সিটি মেয়রের কাছে নাগরিক ফোরাম প্রস্তাবিত উন্নয়ন পরিকল্পনা উপস্থাপন ফকিরহাটে মাতৃত্বকালীন ভাতা গ্রহণকারী মায়েদের প্রশিক্ষণ ন্যাপ নেতা তপন রায় ছিলেন নির্মোহ, নির্লোভ, নিবেদিত প্রাণ

২০৩০সালের মধ্যে বাংলাদেশের টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে অনেক চ্যালেঞ্জ রয়েছে

সংবাদদাতার নাম :
  • প্রকাশিত সময় শনিবার, ৪ জুন, ২০২২
  • ১৩ পড়েছেন

খুলনা প্রতিনিধি।।

খুলনায় প্রধানমন্ত্রীর ১০টি বিশেষ উদ্ভাবনী উদ্যোগ নিয়ে বিভাগীয় প্রশিক্ষণ কর্মশালা শনিবার সকালে নগরীর সিএসএস আভা সেন্টারে অনুষ্ঠিত হয়েছে।কর্মশালায় প্রধান অতিথি ছিলেন বিভাগীয় কমিশনার মোঃ ইসমাইল হোসেন। প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের গভর্নেস ইনোভেশন ইউনিটের সহযোগিতায় খুলনা বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয়ে এই কর্মশালার আয়োজন করে।খুলনার অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার(উন্নয়ন) মোঃ আব্দুর রশিদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করেন খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মোঃ মাসুদুর রহমান ভূঞা, অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার(রাজস্ব) মোঃ শহিদুল ইসলাম, খুলনা জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শেখ হারুনুর রশীদ এবং সরকারি বিএল কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর শরীফ মোঃ আতিকুজ্জামান প্রমুখ। প্রধান অতিথির বক্তৃতায় বিভাগীয় কমিশনার বলেন, ২০৪১ সালের উন্নত বাংলাদেশ গড়ার অঙ্গীকারে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ১০টি বিশেষ উদ্যোগ। এর সাথেই রয়েছে ২০৩০ সালের মধ্যে টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের চ্যালেঞ্জ। রাষ্ট্রীয় উন্নয়নের অংশীদার বিভিন্ন বিভাগের সমন্বিত উদ্যোগ এসব চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় সহায়ক হবে। তিনি বলেন, সকলের মতামতের ভিত্তিতে মাঠ পর্যায়ের সমস্যা চিহ্নিত করা গেলে রাষ্ট্রীয়ভাবে প্রেক্ষিত পরিকল্পনা গ্রহণে এটি কার্যকর ভূমিকা রাখবে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ১০টি বিশেষ উদ্যোগ বিষয়ে প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন মাগুরা জেলা প্রশাসক ড. আশরাফুল আলম এবং খুলনা এডমিনিস্ট্রোটিভ কনভেশন সেন্টারের প্রকল্প পরিচালক আবু সায়েদ মোঃ মনজুর আলম। পল্লী সঞ্চয় ব্যাংক, আশ্রয়ণ প্রকল্প, ডিজিটাল বাংলাদেশ, শিক্ষা সহায়তা কর্মসূচি, নারীর ক্ষমতায়ন, ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ, কমিউনিটি ক্লিনিক ও মানসিক স্বাস্থ্য, সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচি, বিনিয়োগ বিকাশ ও পরিবেশ সুরক্ষা শীর্ষক প্রধানমন্ত্রীর ১০টি বিশেষ উদ্যোগ নিয়ে কর্মশালায় অংশগ্রহণকারীরা ১০টি গ্রুপে ভাগ হয়ে সমস্যা ও চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় সুপারিশ তুলে ধরেন। কর্মশালায় খুলনা বিভাগের ১০টি জেলার জেলা প্রশাসক, বিভিন্ন দপ্তরের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা, জনপ্রতিনিধি, শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা অংশগ্রহণ করেন। ##

সংবাদটি শেয়ার করার জন্য অনুরোধ করা হলো

এ ধরনের আরো সংবাদ

© All rights reserved by www.banglardinkal.com (Established in 2017)

Hwowlljksf788wf-Iu