বুধবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০২:৫৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
পঞ্চগড়ের নৌকাডুবিতে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৬৫, নিখোঁজ আরো ক্ষিপ্ত হয়ে ট্রফি ভাঙা সেই ইউএনওকে ঢাকায় বদলি প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা অনুযায়ী তিন ফসলি কৃষিজমি ধ্বংস করে কোন কিছু করা যাবে না বাংলাদেশ ও ভারতের মানুষের মধ্যে ঐতিহ্য, কৃষ্টি ও সংস্কৃতির সাদৃশ্যে নানা উৎসবে ভ্রাতৃত্বের বন্ধনে আবদ্ধ : ভারতীয় সহকারী হাই কমিশনার খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি ও নিয়োগের ক্ষেত্রে ডোপ টেস্ট বাধ্যতামূলক করার উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে : উপাচার্য শ্যামনগরের কাঁশিমাড়িতে বজ্রপাত প্রতিরোধে তিন কিলোমিটার রাস্তায় তালবীজ বপন রামপালে বিনামূল্যে চিকিৎসা পেলেন ৩ সহস্রাধিক রোগী  খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে রিসার্চ সোসাইটির আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম শুরু মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতি সম্মান প্রদর্শন করা আমাদের সকলের দায়িত্ব : মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী রামপাল তাপ বিদ্যুত কেন্দ্রের মালামালসহ ০৬ ডাকাত গ্রেফতার

শিক্ষকদের পাণ্ডিত্য, গবেষণা ও ব্যক্তিত্ব শিক্ষার্থীরা অনুসরণ করে

সংবাদদাতার নাম :
  • প্রকাশিত সময় শনিবার, ১৩ আগস্ট, ২০২২
  • ২০ পড়েছেন

খুবি প্রতিনিধি।।

বাংলাদেশ ন্যাশনাল কোয়ালিফিকেশন ফ্রেম ওয়ার্ক(বিএনকিউএফ) এবং বাংলাদেশ অ্যাক্রিডিটেশন কাউন্সিল(বিএসি)-এর গাইডলাইন অনুসরণ করে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে বিভিন্ন ডিসিপ্লিনে আন্ডার গ্রাজুয়েট ও মাস্টার্স প্রোগ্রামের জন্য কোর্স কারিকুলা প্রণীত হচ্ছে। ডিসিপ্লিনসমূহের মধ্যে এবার আন্ডার গ্রাজুয়েট ও মাস্টার্সের আউটকাম বেজড এডুকেশন(ওবিই) কারিকুলা তৈরির কাজ প্রায় সম্পন্ন করেছে গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা (এমসিজে) ডিসিপ্লিন। এই ডিসিপ্লিনের তৈরিকৃত এ কারিকুলার বিভিন্ন দিক নিয়ে ১১আগস্ট(বৃহস্পতিবার) সামাজিক বিজ্ঞান স্কুলের কনফারেন্স রুমে কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়। কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মাহমুদ হোসেন। এ সময় তিনি বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষা ও গবেষণার মূল উদ্দেশ্য হলো আদর্শ মানুষ ও দক্ষ জনশক্তি তৈরি করা। সীমাবদ্ধতার মধ্যেও খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় সে প্রচেষ্টা অব্যাহত রেখেছে। ওবিই কারিকুলা প্রণয়নের ফলে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার মান উন্নত হবে এবং এখনাকার গ্র্যাজুয়েটরা বৈশ্বিক চ্যালেঞ্জ মোকাবেলার সক্ষমতা অর্জন করে যেকোনো স্থানে মাথা উঁচু করে কাজ করতে পারবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন। তিনি আরও বলেন, একজন শিক্ষক কখনো মাথা নিচু করে চলতে পারেন না। তিনি সবসময়ই মাথা উচু করে চলবেন; এটাই প্রত্যাশিত। মনে রাখতে হবে শিক্ষকদের পাণ্ডিত্য, গবেষণা ও ব্যক্তিত্ব শিক্ষার্থীরা পর্যবেক্ষণ করে এবং নিজেদের ভিতর তা ধারণ করে। তাই ক্লাসে যাওয়ার আগে শিক্ষকদের সেভাবে প্রস্তুতি নিয়ে যাওয়া উচিত। গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা ডিসিপ্লিনের নবীন শিক্ষকবৃন্দ অত্যন্ত পরিশ্রম করে ওবিই কারিকুলা চূড়ান্ত পর্যায়ে উপনীত করেছেন তার জন্য তিনি তাদেরকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান। তিনি বলেনম, এই ডিসিপ্লিন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। কারণ, এখানকার শিক্ষার্থীরা সকল মিডিয়াতে বিচরণ করবে এবং জনমত গঠনে তাদের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে। সাংবাদিকদের একটি শব্দের ভুল ব্যবহারের জন্য দেশ ও সমাজে বিশৃঙ্খলা তৈরি হতে পারে। আবার একটি উপযোগী শব্দের জন্য অনেক সমস্যা নিরসন ও দিকনির্দেশনা তৈরি হতে পারে। তিনি হলুদ সাংবাদিকতার ক্ষতিকর দিক সম্পর্কেও তুলে ধরেন। তিনি এই কারিকুলা প্রণয়নকাজে মতামত ও পরামর্শ দিয়ে সহযোগিতার জন্য বিশেষজ্ঞ সদস্যদেরও ধন্যবাদ জানান। কর্মশালায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সামাজিক বিজ্ঞান স্কুলের ডিন প্রফেসর ড. মো. নাসিফ আহসান, আইকিউএসির পরিচালক প্রফেসর ড. মোহাম্মদ জিয়াউল হায়দার, বহিঃস্থ বিশেষজ্ঞ সদস্য ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. আবুল মানসুর আহমেদ এবং ইউজিসির আইকিউএসি এক্সপার্ট ও পিয়ার রিভিউয়ার প্রফেসর ড. মুহাম্মদ মাহবুব আলী।সভাপতিত্ব করেন সংশ্লিষ্ট ডিসিপ্লিন প্রধান প্রফেসর ড. আব্দূল্লাহ আবুসাঈদ খান। স্বাগত বক্তব্য রাখেন সহকারী অধ্যাপক মামুনুর রশীদ। প্রণীত ওবিই কারিকুলা’র বিভিন্ন দিক নিয়ে আলোকপাত করেন সহকারী অধ্যাপক মো. শহীদুল ইসলাম। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন সহকারী অধ্যাপক সারা মোনামী হোসেন।এসময় সংশ্লিষ্ট ডিসিপ্লিনের শিক্ষক, আইকিউএসির অতিরিক্ত পরিচালক এবং অ্যালামনাইবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। ##

সংবাদটি শেয়ার করার জন্য অনুরোধ করা হলো

এ ধরনের আরো সংবাদ

© All rights reserved by www.banglardinkal.com (Established in 2017)

Hwowlljksf788wf-Iu