ঢাকা ০৭:২৯ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বিশ্ব এন্টিমাইক্রোবিয়াল সচেতনতা সপ্তাহ উপলক্ষ্যে  সভা অনুষ্ঠিত

###    খুলনায় ‘এন্টিবায়োটিক ব্যবহারে সচেতন হই, সকলে মিলে এন্টিমাইক্রোবিয়াল রেজিস্ট্যান্স প্রতিরোধ করি’ এ প্রতিপাদ্যে বিশ্ব এন্টিমাইক্রোবিয়াল সচেতনতা সপ্তাহ উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে খুলনা ২৫০শয্যা জেনারেল হাসপাতালের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন খুলনার সিভিল সার্জন ডাঃ সুজাত আহমেদ। এ সময় তিনি বলেন, এন্টিবায়োটিক ব্যবহারে সকলকে সচেতন হতে হবে। রেজিস্টার্ড চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া এন্টিবায়োটিক সেবন করা যাবে না। সারা বিশ্বে এন্টিমাইক্রোবিয়াল রেজিস্ট্যান্স একটি স্বাস্থ্যগত সমস্যা। এন্টিবায়োটিকের ডোজ সম্পন্ন না করার ফলে এন্টিমাইক্রোবিয়াল রেজিস্ট্যান্সের কারণে বিশ্বে প্রতিবছর সাত লাখ মানুষ মারা যাচ্ছে। যার একটি বড় অংশই আমাদের মতো স্বল্পোন্নত দেশের মানুষ। রোগের চিকিৎসায় সঠিকমাত্রায় এন্টিবায়োটিক ব্যবহার করতে হবে। তিনি আরও বলেন, বিএমডিসি’র রেজিস্ট্রেশন প্রাপ্ত ডাক্তার ব্যতীত অন্য কেউ এন্টিবায়োটিক সেবনের পরামর্শ দিলে তাকে অবশ্যই আইনের আওতায় আনতে হবে। আমাদের সচেতনতার মাধ্যমে এন্টিবায়োটিকের যথোপযুক্ত ব্যবহার নিশ্চিত হতে পারে।

আরোচনা সভায় বক্তৃতা করেন খুলনা ২৫০শয্যা জেলারেল হাসপতালের মেডিসিন বিশেষজ্ঞ ডাঃ মোঃ নাজমুল কবীর, গাইনি বিশেষজ্ঞ ডাঃ ইসমত আরা নদী, ডাঃ মোঃ বায়জিদ মোস্তফা, খুলনা ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মোঃ মনির উদ্দিন আহমেদ প্রমুখ। সভায় মূলপ্রবন্ধ উপস্থাপন করেন মেডিকেল অফিসার ডাঃ দোলনা খাতুন। স্বাগত জানান আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাঃ এসএম মুরাদ হোসেন। সভাটি সঞ্চালনা করেন সিনিয়র স্বাস্থ্য শিক্ষা কর্মকর্তা মোঃ আবুল কালাম আজাদ। এরআগে হাসপাতাল চত্বর থেকে বর্ণাঢ্য র‌্যালি শুরু হয়ে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে একই স্থানে এসে শেষ হয়। র‌্যালিতে চিকিৎসক, নার্সসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ অংশ গ্রহণ করেন। উল্লেখ্য, ১৮ থেকে ২৪ নভেম্বর পর্যন্ত বিশ্ব এন্টিমাইক্রোবিয়াল সচেতনতা সপ্তাহ চলবে। ##

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Banglar Dinkal

বিশ্ব এন্টিমাইক্রোবিয়াল সচেতনতা সপ্তাহ উপলক্ষ্যে  সভা অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত সময় ০১:৪৬:১৫ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৪ নভেম্বর ২০২২

###    খুলনায় ‘এন্টিবায়োটিক ব্যবহারে সচেতন হই, সকলে মিলে এন্টিমাইক্রোবিয়াল রেজিস্ট্যান্স প্রতিরোধ করি’ এ প্রতিপাদ্যে বিশ্ব এন্টিমাইক্রোবিয়াল সচেতনতা সপ্তাহ উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে খুলনা ২৫০শয্যা জেনারেল হাসপাতালের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন খুলনার সিভিল সার্জন ডাঃ সুজাত আহমেদ। এ সময় তিনি বলেন, এন্টিবায়োটিক ব্যবহারে সকলকে সচেতন হতে হবে। রেজিস্টার্ড চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া এন্টিবায়োটিক সেবন করা যাবে না। সারা বিশ্বে এন্টিমাইক্রোবিয়াল রেজিস্ট্যান্স একটি স্বাস্থ্যগত সমস্যা। এন্টিবায়োটিকের ডোজ সম্পন্ন না করার ফলে এন্টিমাইক্রোবিয়াল রেজিস্ট্যান্সের কারণে বিশ্বে প্রতিবছর সাত লাখ মানুষ মারা যাচ্ছে। যার একটি বড় অংশই আমাদের মতো স্বল্পোন্নত দেশের মানুষ। রোগের চিকিৎসায় সঠিকমাত্রায় এন্টিবায়োটিক ব্যবহার করতে হবে। তিনি আরও বলেন, বিএমডিসি’র রেজিস্ট্রেশন প্রাপ্ত ডাক্তার ব্যতীত অন্য কেউ এন্টিবায়োটিক সেবনের পরামর্শ দিলে তাকে অবশ্যই আইনের আওতায় আনতে হবে। আমাদের সচেতনতার মাধ্যমে এন্টিবায়োটিকের যথোপযুক্ত ব্যবহার নিশ্চিত হতে পারে।

আরোচনা সভায় বক্তৃতা করেন খুলনা ২৫০শয্যা জেলারেল হাসপতালের মেডিসিন বিশেষজ্ঞ ডাঃ মোঃ নাজমুল কবীর, গাইনি বিশেষজ্ঞ ডাঃ ইসমত আরা নদী, ডাঃ মোঃ বায়জিদ মোস্তফা, খুলনা ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মোঃ মনির উদ্দিন আহমেদ প্রমুখ। সভায় মূলপ্রবন্ধ উপস্থাপন করেন মেডিকেল অফিসার ডাঃ দোলনা খাতুন। স্বাগত জানান আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাঃ এসএম মুরাদ হোসেন। সভাটি সঞ্চালনা করেন সিনিয়র স্বাস্থ্য শিক্ষা কর্মকর্তা মোঃ আবুল কালাম আজাদ। এরআগে হাসপাতাল চত্বর থেকে বর্ণাঢ্য র‌্যালি শুরু হয়ে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে একই স্থানে এসে শেষ হয়। র‌্যালিতে চিকিৎসক, নার্সসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ অংশ গ্রহণ করেন। উল্লেখ্য, ১৮ থেকে ২৪ নভেম্বর পর্যন্ত বিশ্ব এন্টিমাইক্রোবিয়াল সচেতনতা সপ্তাহ চলবে। ##