সোমবার, ২৭ জুন ২০২২, ০৫:২৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
খুলনায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গৌরবের ১০১তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর অনুষ্ঠান ০১জুলাই পদ্মা সেতুতে মোটরসাইকেল চলাচল নিষিদ্ধ ঘোষণা পদ্মা সেতুতে হ-য-ব-র-ল অবস্থা : নাটবোল্ট খোলা যুবক বিএনপি কর্মী বাইজীদ আটক খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে সিটিজেন চার্টার এন্ড জিআরএস-১ শীর্ষক প্রশিক্ষণ টেকসই অর্থায়ন বিষয়ক প্রশিক্ষণ ও সচেতনতামূলক কর্মশালা অনুষ্ঠিত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রদল নেত্রী রুমার বাড়িতে হামলা,  জেলা ছাত্রদলের নিন্দা  নগরীতে হিজড়া ও লিঙ্গ বৈচিত্রময় জনগোষ্টির বৈষম্য দুরীকরনে নেটওয়ার্কিং মিটিং অনুষ্ঠিত সিটি মেয়রের কাছে নাগরিক ফোরাম প্রস্তাবিত উন্নয়ন পরিকল্পনা উপস্থাপন ফকিরহাটে মাতৃত্বকালীন ভাতা গ্রহণকারী মায়েদের প্রশিক্ষণ ন্যাপ নেতা তপন রায় ছিলেন নির্মোহ, নির্লোভ, নিবেদিত প্রাণ

পদ্মা সেতুর উদ্বোধনই বিশ্বব্যাংক ও আমেরিকার অপবাদের উপযুক্ত জবাব

সংবাদদাতার নাম :
  • প্রকাশিত সময় শুক্রবার, ১৭ জুন, ২০২২
  • ১১ পড়েছেন

অফিস ডেক্স।।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভ্রাতুষ্পুত্র বাগেরহাট-১ আসনের সংসদ সদস্য শেখ হেলাল উদ্দিন বলেছেন, পদ্মা সেতু বাংলাদেশ এবং শেখ হাসিনার মর্যাদা ও গৌরবের বিষয়। এই সেতু বহির্বিশ্বে আমাদের সম্মান বৃদ্ধি করেছে। শেখ হাসিনা চ্যালেঞ্জ দিয়েই নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মা সেতু নির্মান করেছেন। শেখ হাসিনার চ্যালেঞ্জের মূল শক্তিই হচ্ছে দলের নেতাকর্মী ও দেশের আপামর জনগন। তিনি বলেন, পদ্মা সেতুকে নিয়ে বিএনপি-জামাতের ষড়যন্ত্রের জবাব দিতে হবে। বাংলাদেশকে বিশ্বব্যাংক ও আমেরিকা যে মিথ্যা অপবাদ দিয়েছে, পদ্মা সেতুর উদ্বোধনই তাদের মিথ্যা প্রচারনা ও অপবাদের উপযুক্ত এবং কঠোর জবাব হবে। তারা শুধু বাংলাদেশকে নয় বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিানকে অপমান করেছে। প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার দৃঢ়তার কারণে তারা সফল হয়নি। তিনি আরও বলেন, কানাডার আদালতে প্রমানিত হয়েছে বাংলাদেশ এবং শেখ হাসিনা নিরাপরাধ। আপনারা আওয়ামী লীগের প্রাণ ও শক্তি। আপনাদের কারণেই আওয়ামী লীগ আজ রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায়। বিএনপি ও দেশী-বিদেশী অপশক্তি পদ্মা সেতুকে নিয়ে যে নাশকতা ও  ষড়যন্ত্র করছে এদের দাঁতভাঙ্গা জবাব দেয়ার জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে।বিএনপি-জামাত শেখ হাসিনাকে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়েছে। এই চ্যালেঞ্জে অতীতের মতো আপনাদেরকে সাথে নিয়ে বিজয়ী হবো ইনশাল্লাহ। ওদের নাশকতার ও ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে আপনারা সোচ্চার থাকুন। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু ১৯৭৩ সালে পদ্মা সেতু নকশা করে তদানুযায়ী রাস্তা করেছিলেন। সেই রাস্তার সূত্র ধরেই প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা পদ্মা সেতু নির্মান করে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়ন করেছেন। এই সফলতার কোন ভাগ কাউকে দেয়া যাবে না। বিএনপি-জামাত ও ষড়যন্ত্রকারীদের সস্তা জনপ্রিয়তা নিতে দেয়া যাবে না। এই সফলতা ও জনপ্রিয়তা একমাত্র শেখ হাসিনারই। ওদের হাতে দেশ অরক্ষিত। শেখ হাসিনার হাতে নিরাপদ রাষ্ট্র ও সরকারকে ঐক্যবদ্ধভাবে রক্ষা করতে হবে। তিনি দলের নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে  বলেন, আপনারা ঐক্যবদ্ধ থাকবেন। ঐক্যবদ্ধ থাকলে শেখ হাসিনার দিকে তাকিয়ে কেউই কথা বলতে পারবে না। বৃহস্পতিবার বিকালে নগরীর ইউনাইটেড ক্লাবে মহানগর ও জেলা আওয়ামী লীগের উদ্যেগে ঐতিহাসিক পদ্মা সেতুর উদ্বোধনী অনুষ্ঠান সফল করার লক্ষে আয়োজিত বিশেষ বর্ধিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন। সভায় সভাপতিত্ব করেন খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সিটি মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক। খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এম ডি এ বাবুল রানা ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. সুজিত কুমার অধিকারীর সঞ্চালনায় সভায় বক্তৃতা করেন খুলনা-২ আসনের সংসদ সদস্য সেখ সালাহউদ্দিন জুয়েল, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কেন্দ্রিয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম কামাল হোসেন, খুলনা-৫ আসনের সংসদ সদস্য নারায়ন চন্দ্র চন্দ, খুলনা-৬ আসনের সংসদ সদস্য আকতারুজ্জামান বাবু, খুলনা-৪ আসনের সংসদ সদস্য আব্দুস সালাম মুর্শিদী ও মহানগর আওয়ামী লীগ সহ-সভাপতি ও চেম্বার সভাপতি কাজি আমিনুল হক, খুলনা সদর থানা আওয়ামী লীগ ও জেলা আইনজীবি সমিতির সভাপতি এ্যাড. মো. সাইফুল ইসলাম, সোনাডাঙ্গা থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান বুলু বিশ্বাস, খালিশপুর থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি একেএম সানাউল্লাহ নান্নু, দৌলতপুর থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ সৈয়দ আলী, খানজাহান আলী থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ আবিদ হোসেন, কয়রা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জিএম মহসিন রেজা, পাইকগাছা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান আনোয়ার ইকবাল মন্টু, ফুলতলা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান শেখ আকরাম হোসেন, দিঘলিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি খান নজরুল ইসলাম, রূপসা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান কামাল উদ্দিন বাদশা, বটিয়াঘাটা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান আশরাফুল আলম খান, দাকোপ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ আবুল হোসেন, ডুমুরিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহনেওয়াজ হোসেন জোয়ার্দ্দার, তেরখাদা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এএম ওয়াহিদুজ্জামান। সভায় মহানগর ও জেলা আওয়ামী লীগের নির্বাহী কমিটির সকল সদস্য, মহানগরীর পাঁচ থানা, নয় উপজেলা ও পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক, নির্বাচিত দলীয় উপজেলা চেয়ারম্যান ও পৌর মেয়র, মহানগরীর ৩৬ওয়ার্ডের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক এবং জেলার সকল ইউনিয়নের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক, সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচিত দলীয় সকল কাউন্সিলর এবং জেলার সকল ইউনিয়নের নির্বাচিত দলীয় চেয়ারম্যানসহ মহানগর ও জেলা পর্যায়ের সকল সহযোগী সংগঠনের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকরা উপস্থিত ছিলেন।অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় সহযোগীতা করেন মহানগর আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক মো. মুন্সি মাহবুব আলম সোহাগ, জেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক এম.এ রিয়াজ কচি, মহানগর আওয়ামী লীগের উপ-দপ্তর সম্পাদক হাফেজ মো. শামীম, উপ-প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মো. মফিদুল ইসলাম টুটুল।সভায় নাশকতা প্রতিরোধে প্রত্যেক গাড়ীতে স্বেচ্ছাসেবক ও নিরাপত্তাকর্মী রাখার সিদ্ধান্ত হয়। সুশৃঙ্খলভাবে পদ্মা সেতুর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যাওয়ার নির্দেশনা দেয়া হয়।##

সংবাদটি শেয়ার করার জন্য অনুরোধ করা হলো

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ ধরনের আরো সংবাদ

© All rights reserved by www.banglardinkal.com (Established in 2017)

Hwowlljksf788wf-Iu