ঢাকা ০৭:৩৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

নগরীর জলাবদ্ধতা নিরসন হরিণটানা খাল খনন কার্যক্রমের লে-আউট প্রদান

###    খুলনা মহানগরীর হরিণটানা খাল খনন কার্যক্রমের লে-আউট প্রদান করেন কেসিসি মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক। শুক্রবার সকালে নগরীর জলাবদ্ধতা নিরসন প্রকল্পের আওতায় সুষ্ঠভাবে মহানগরীর হরিণটানা খাল খনন কার্যক্রমের লে-আউট প্রদান করে।এ সময় খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র তালুকদর আব্দুল খালেক বলেন, মহানগরীর জলাবদ্ধতা নিরসনে আমরা বদ্ধপরিকর। সে লক্ষ্যে আধুনিক ড্রেনেজ ব্যবস্থা বাস্তবায়নের পাশাপাশি নগর সংলগ্ন খাল ও নদীসমূহ খনন করা হচ্ছে। পর্যায়ক্রমে প্রকল্পভুক্ত নদী ও খালসমূহের খনন কাজ সম্পন্ন হলে নগরীর জলাবদ্ধতা দূর হবে। সিটি মেয়র শুক্রবার সকালে নগরীর হরিণটানা খাল খনন কার্যক্রমের লে-আউট প্রদানকালে এ কথা বলেন। খুলনাকে সুন্দর, পরিচ্ছন্ন ও জলাবদ্ধতামুক্ত নগরী হিসেবে গড়ে তুলতে চাই। এ কাজে তিনি নগরবাসীর সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেন এবং এ সকল কার্যক্রম সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে বাস্তবায়নে প্রকল্পভুক্ত এলাকায় নির্মিত অবৈধ স্থাপনা নিজ উদ্যোগে অপসারণের জন্য দখলদারদের প্রতি আহবান জানান। অন্যথায় তাদের বিরুদ্ধে যথাযথ আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে তিনি উল্লেখ করেন। এ সময় কেসিসির কাউন্সিলর জেড এ মাহমুদ ডন, প্রধান প্রকৌশলী মো: মনজুরুল ইসলাম, তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মশিউজ্জামান খান, নির্বাহী প্রকৌশলী শেখ মো: মাসুদ করিম, উপসহকারী প্রকৌশলী মো: নাজমুল হুদা ও অমিত কান্তি ঘোষ, ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান মেসার্স জিয়াউল ট্রেডার্স-এর সত্ত্বাধিকারী জিয়াউল আহসানসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। উল্লেখ্য, কেসিসি’র ‘জলাবদ্ধতা নিরসনে ড্রেনেজ ব্যবস্থার উন্নয়ন’ প্রকল্পের আওতায় ১ কোটি ১৩ লক্ষ টাকা ব্যয়ে ২ হাজার ৩’শ ৪৪ মিটার দীর্ঘ হরিণটানা খালটি খনন করা হচ্ছে।  ##

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Banglar Dinkal

নগরীর জলাবদ্ধতা নিরসন হরিণটানা খাল খনন কার্যক্রমের লে-আউট প্রদান

প্রকাশিত সময় ১২:১৮:০০ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৯ নভেম্বর ২০২২

###    খুলনা মহানগরীর হরিণটানা খাল খনন কার্যক্রমের লে-আউট প্রদান করেন কেসিসি মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক। শুক্রবার সকালে নগরীর জলাবদ্ধতা নিরসন প্রকল্পের আওতায় সুষ্ঠভাবে মহানগরীর হরিণটানা খাল খনন কার্যক্রমের লে-আউট প্রদান করে।এ সময় খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র তালুকদর আব্দুল খালেক বলেন, মহানগরীর জলাবদ্ধতা নিরসনে আমরা বদ্ধপরিকর। সে লক্ষ্যে আধুনিক ড্রেনেজ ব্যবস্থা বাস্তবায়নের পাশাপাশি নগর সংলগ্ন খাল ও নদীসমূহ খনন করা হচ্ছে। পর্যায়ক্রমে প্রকল্পভুক্ত নদী ও খালসমূহের খনন কাজ সম্পন্ন হলে নগরীর জলাবদ্ধতা দূর হবে। সিটি মেয়র শুক্রবার সকালে নগরীর হরিণটানা খাল খনন কার্যক্রমের লে-আউট প্রদানকালে এ কথা বলেন। খুলনাকে সুন্দর, পরিচ্ছন্ন ও জলাবদ্ধতামুক্ত নগরী হিসেবে গড়ে তুলতে চাই। এ কাজে তিনি নগরবাসীর সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেন এবং এ সকল কার্যক্রম সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে বাস্তবায়নে প্রকল্পভুক্ত এলাকায় নির্মিত অবৈধ স্থাপনা নিজ উদ্যোগে অপসারণের জন্য দখলদারদের প্রতি আহবান জানান। অন্যথায় তাদের বিরুদ্ধে যথাযথ আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে তিনি উল্লেখ করেন। এ সময় কেসিসির কাউন্সিলর জেড এ মাহমুদ ডন, প্রধান প্রকৌশলী মো: মনজুরুল ইসলাম, তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মশিউজ্জামান খান, নির্বাহী প্রকৌশলী শেখ মো: মাসুদ করিম, উপসহকারী প্রকৌশলী মো: নাজমুল হুদা ও অমিত কান্তি ঘোষ, ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান মেসার্স জিয়াউল ট্রেডার্স-এর সত্ত্বাধিকারী জিয়াউল আহসানসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। উল্লেখ্য, কেসিসি’র ‘জলাবদ্ধতা নিরসনে ড্রেনেজ ব্যবস্থার উন্নয়ন’ প্রকল্পের আওতায় ১ কোটি ১৩ লক্ষ টাকা ব্যয়ে ২ হাজার ৩’শ ৪৪ মিটার দীর্ঘ হরিণটানা খালটি খনন করা হচ্ছে।  ##