বুধবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৩:৩৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
পঞ্চগড়ের নৌকাডুবিতে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৬৫, নিখোঁজ আরো ক্ষিপ্ত হয়ে ট্রফি ভাঙা সেই ইউএনওকে ঢাকায় বদলি প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা অনুযায়ী তিন ফসলি কৃষিজমি ধ্বংস করে কোন কিছু করা যাবে না বাংলাদেশ ও ভারতের মানুষের মধ্যে ঐতিহ্য, কৃষ্টি ও সংস্কৃতির সাদৃশ্যে নানা উৎসবে ভ্রাতৃত্বের বন্ধনে আবদ্ধ : ভারতীয় সহকারী হাই কমিশনার খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি ও নিয়োগের ক্ষেত্রে ডোপ টেস্ট বাধ্যতামূলক করার উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে : উপাচার্য শ্যামনগরের কাঁশিমাড়িতে বজ্রপাত প্রতিরোধে তিন কিলোমিটার রাস্তায় তালবীজ বপন রামপালে বিনামূল্যে চিকিৎসা পেলেন ৩ সহস্রাধিক রোগী  খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে রিসার্চ সোসাইটির আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম শুরু মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতি সম্মান প্রদর্শন করা আমাদের সকলের দায়িত্ব : মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী রামপাল তাপ বিদ্যুত কেন্দ্রের মালামালসহ ০৬ ডাকাত গ্রেফতার

জয়বাংলা শ্লোগান দিয়ে হেলমেটধারীরা সমাবেশে হামলা চালায় : বিএনপি নেতৃবৃন্দ

সংবাদদাতার নাম :
  • প্রকাশিত সময় শুক্রবার, ১৯ আগস্ট, ২০২২
  • ২০ পড়েছেন

অফিস ডেক্স।।

মহানগর যুবলীগের এক শীর্ষ নেতার নেতৃত্বে হেলমেট পরিহিত সন্ত্রাসীরা সশস্ত্র অবস্থায় জয়বাংলা শ্লোগান দিয়ে হামলা চালিয়ে ১৭নং ওয়ার্ড বিএনপির কর্মীসভা পন্ড করেছে। খুলনায় বিএনপির একের পর এক রাজনৈতিক কর্মসূচিতে ফ্যাসিবাদী শাসক গোষ্ঠী ক্ষমতা হারানোর ভয়ে আতংকিত হয়ে ইতিহাসে নজিরবিহীন ন্যাক্কারজনক এ হামলা চালিয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন নগর বিএনপি নেতারা। বৃহস্পতিবার (১৮ আগষ্ট) বেলা সাড়ে ১১টায় কেডি ঘোষ রোডস্থ দলীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত প্রেসব্রিফিংয়ে এ অভিযোগ করেন তারা। বুধবার রাতে নগরীর বায়তুন নুর মসজিদ সংলগ্ন এলাকায় পুলিশের উপস্থিতিতে ১৭ নংওয়ার্ড বিএনপির কর্মী সভায় শাসক দলীয় সশস্ত্র সন্ত্রাসী ক্যাডারদের বর্বরোচিত হামলা,সভা মঞ্চ ও চেয়ার টেবিল ভাংচুর-তান্ডব, শতাধিক নেতাকর্মীকে আহত করা, হামলা থেকে নারী নেত্রীদের রেহাই না দেয়া এবং অন্তত অর্ধশতাধিক মোটর সাইকেল ভাংচুরের ঘটনায় খুলনা মহানগর বিএনপি এ ব্রিফিংয়ের আয়োজন করে।

প্রেসব্রিফিংয়ে বিএনপি নেতৃবৃন্দ বলেন, বিএনপির অভ্যন্তরীন কোন্দলের কারণে মারামারির ঘটনা ঘটেছে বলে সোনাডাঙ্গা থানার ওসির দেওয়া বক্তব্য কঠোরভাবে প্রত্যাখ্যান করেন। ওসি রাজনৈতিক নেতার মতো বক্তব্য দিয়েছেন। সরকারি দায়িত্বশীল কর্মকর্তার মতো কথা বলেন নি। ১৭ নংওয়ার্ড কাউন্সিলর ও তিনি (ওসি) যখন সেফ এন সেভের সামনে একসাথে অবস্থান করছিলেন, সে সময় তাদের সামনে দিয়ে শাসক দলীয় ক্যাডাররা মিছিলে জয়বাংলা শ্লোগান দিয়ে বিএনপির শান্তিপূর্ণ কর্মী সভায় হামলা চালায়। সভাস্থলে যে সব পুলিশ সদস্য দায়িত্বরত ছিলেন, তারা শুরুতে হামলাকারীদের ঠেকানোর চেষ্টা করে। কিন্ত তাদের সহিংস, মারমুখি আচরণ এ পুলিশ অসহায় হয়ে পড়ে। প্রেস ব্রিফিংয়ে বক্তব্য রাখেন মহানগর বিএনপির আহবায়ক শফিকুল আলম মনা ও সদস্য সচিব শফিকুল আলম তুহিন। তারা বলেন, মাফিয়া, লুটেরা, ভোটচোর সরকার সীমাহীন দুর্নীতি করে দেশটাকে ধ্বংসের দিকে নিয়ে গেছে। তেল, গ্যাস, বিদ্যুৎ, জ¦ালানির দাম বাড়ায় নিত্য প্রয়োজনীয় সব কিছুর মূল্য ক্রয় ক্ষমতার বাইরে চলে গেছে। মানুষ ক্ষোভের আগুণে ফুসছে। ক্ষমতা হারানোর ভয়ে সরকার আতংকগ্রস্থ। তারা অস্থির হয়ে পড়েছে। যে কোন মূল্যে ফ্যাসিবাদী সরকার ক্ষমতা দখল করে রাখতে চায়। বিএনপি নেতারা বলেন, গত বছরের ৯ ডিসেম্বর মহানগর বিএনপির নতুন আহবায়ক কমিটি ঘোষণার পর থেকে নেতাকর্মীদের মাঝে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনা সৃষ্টি হয়েছে। কেন্দ্রীয় নেতাদের উপস্থিতিতে অনেক কর্মসূচি লাখো জনতার উপস্থিতিতে সফলভাবে পালিত হয়েছে। ওয়ার্ড কমিটি গঠনের লক্ষ্যে মাসব্যাপি কর্মীসভা হাতে নেয়া হয়েছে। ৩১টি ওয়ার্ড ও থানায় কর্মসূচির দিন তারিখ ও স্থান নির্ধারণ করে খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার ও সংশ্লিষ্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে তালিকা দেওয়া হয়েছে। বিএনপি সংগঠনকে শক্তিশালী কাঠামোর ওপর দাঁড় করাতে এসব কর্মসূচি শান্তিপূর্ণভাবে পালন করছে। দলে নেতৃত্বের প্রতিযোগিতা আছে কিন্ত সেখানে কোন দ্বন্দ সংঘাতের অবকাশ নেই।

নেতারা অভিযোগ করেন, বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খানের উপস্থিতিতে ২৬ মে কেন্দ্র ঘোষিত কর্মসূচি পুলিশ ও শাসক দলীয় সন্ত্রাসীদের যৌথ হামলায় পন্ড হয়ে যায়। এরআগে ৫ জানুয়ারী বিএনপির মানববন্ধন কর্মসূচির সূচনাকালে পুলিশ এসে বেধড়ক লাঠিচার্জ করলে নগর বিএনপির সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ফখরুল আলম গুরুতর জখম হন। তার একটি চোখ নষ্ট হয়ে গেছে। অপরটিও নষ্ট হওয়ার পথে। তারও আগে দলীয় কার্যালয়ের সামনে আর একটি মানববন্ধন কর্মসূচিতে পেটোয়া পুলিশের হামলায় গুরুতর আহত হয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান ৩১ নংওয়ার্ড বিএনপি নেতা বাবুল কাজী।

বিএনপি নেতারা বলেন, নগর যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক সুজনের নেতৃত্বে হেলমেট বাহিনী শুধু কর্মীসভাস্থলেই হামলা চালায়নি। হামলায় আহতরা যখন খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালসহ বিভিন্ন প্রাইভেট ক্লিনিকে চিকিৎসা নিতে গেছেন, সেখানেও ছাত্রলীগ-যুবলীগ ক্যাডাররা তল্লাশি চালিয়েছে। মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে গিয়ে বেডে বেডে খোঁজ নেওয়া হয়েছে, বিএনপির কোনকর্মী সেখানে ভর্তি আছেন কিনা। প্রেসব্রিফিং থেকে গুরুতর আহত কর্মীদের একটি তালিকা দেওয়া হয়। তাদের মধ্যে রয়েছেন-মোল্লা ফরিদ আহমেদ, আব্দুর রাজ্জাক, কামরুজ্জামান সবুজ, টুটুল, মোঃ আবু সাঈদ হাওলাদার, মনিরুজ্জামান কাজল, সাবেক কাউন্সিলর হাসনা হেনা, কাউন্সিলর হাফিজুর রহমান মনি, বদরুল আনাম খান, মিজানুর রহমান মিজান, জি এম বাবুল, সৈয়দ তানভির, শফিকুল ইসলাম শফি, ইলিয়াস মোল্লা, সোনিয়া খান, রুবিনা খাতুন, আল আমিন, নজরুল ইসলাম বাবু, বাদশা। এদের মধ্যে শ্রমিক দল নেতা ইলিয়াসের পায়ের রগ কেটে গেছে। স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা কালামের গ্যারেজ ভাংচুর ও লুটপাট চালানো হয়েছে। এ ঘটনায় বিএনপি আইনগত পদক্ষেপ গ্রহণ করবে এবং আদালতে মামলা করবে বলে জানানো হয়।

প্রেস ব্রিফিংকালে উপস্থিত ছিলেন জেলা বিএনপির আহবায়ক আমির এজাজ খান, সদস্য সচিব মনিরুল হাসান বাপ্পী, সিনিয়র যুগ্ম আহবায়কআবু হোসেন বাবু, খান জুলফিকার আলী জুলু, স.ম আব্দুর রহমান, মোল্লা খায়রুল ইসলাম, কাজী মাহমুদ আলী, আব্দুর রকিব মল্লিক, আজিজুল হাসান দুল, মোস্তফাউল বারী লাভলু, শের আলম সান্টু, আবুল কালাম জিয়া, বদরুল আনাম খান, শেখ তৈয়েবুর রহমান, মাহবুব হাসান পিয়ারু, শামীম কবির, চৌধুরী শফিকুল ইসলাম হোসেন, আশরাফুল আলম নান্নু, একরামুল হক হেলাল, শেখ সাদী, এনামুল হক, আব্দুর রাজ্জাক, আশফাকুর রহমান কাকন, কে এম হুমায়ুন কবির, ওয়াহিদুজ্জামান রানা, আনিসুর রহমান, সৈয়দ সাজ্জাদ আহসান পরাগ, কাজী মিজানুর রহমান, এহতেশামুল হক শাওন, মুর্শিদুর রহমান লিটন, আরিফুর হমান, হাবিবুর রহমান বিশ^াস, হাসান উল্লাহ বুলবুল, অ্যাড. মোহাম্মদ আলী বাবু, রফিকুল ইসলাম বাবু, আবু সাঈদ হাওলাদার আব্বাস, মোল্লা ফরিদ আহমেদ, মল্লিক আব্দুস সালাম, নাসির খান, আব্দুস সালাম, হাবিবুর রহমান, তারিকুল ইসলাম, খন্দকার হাসিনুল ইসলাম নিক, শামসুল বারিক পান্না, মিজানুর রহমান মিলটন, শফিকুল ইসলাম শফি, আলী আক্কাস, ফারুক হোসেন, আজিজা খানম এলিজা, অ্যাড. কানিজ ফাতেমা আমিন, আখতারুজ্জামান সজীব, ইসতিয়াক আহমেদ ইস্তি প্রমুখ। #

সংবাদটি শেয়ার করার জন্য অনুরোধ করা হলো

এ ধরনের আরো সংবাদ

© All rights reserved by www.banglardinkal.com (Established in 2017)

Hwowlljksf788wf-Iu