ঢাকা ০৭:২৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

খুলনায় বিশ্ব অটিজম সচেতনতা দিবস পালিত

তথ্যবিবরণী :

সারা বিশ্বের সাথে একযোগে আজ (মঙ্গলবার) খুলনায় ১২তম বিশ্ব অটিজম সচেতনতা দিবস পালিত হয়। এবছর দিবসটির প্রতিপাদ্য ‘সহায়ক প্রযুক্তির ব্যবহার অটিজম বৈশিষ্ট্যসম্পন্ন ব্যক্তির অধিকার’।

দিবসটি পালন উপলক্ষে খুলনা অফিসার্স ক্লাবে জেলা প্রশাসন ও জেলা সমাজসেবা কার্যালয় আয়োজিত আলোচনা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক।

প্রধান অতিথি বলেন, অটিজম নিয়ে আমাদের দেশের মানুষের মধ্যে এক সময় সচেতনতার অভাব থাকলেও প্রধানমন্ত্রীর কন্যা সায়মা ওয়াজেদ পুতুলের ঐকান্তিক প্রচেষ্ঠার ফলে তা এখন অনেক বৃদ্ধি পেয়েছে। সুষ্ঠু পরিচর্যার মাধ্যমে অটিজম আক্রান্ত শিশুরাও যে সমাজের সম্পদে পরিণত হতে পারে সে বিষয়ে মানুষকে আরও সচেতন করে তুলতে হবে। পাশাপাশি যে সকল কারণে শিশুরা অটিজমে আক্রান্ত হয় সে বিষয়ে বাবা-মায়ের আগে থেকেই সতর্ক থাকতে হবে।

পরে প্রধান অতিথি অটিজম আক্রান্ত শিশুদের মাঝে হুইল চেয়ারসহ সহায়ক উপকরণ বিতরণ করেন।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বিভাগীয় সমাজসেবা কার্যালয়ের পরিচালক এ কে এম শামিমুল হক ছিদ্দিকী, ডেপুটি সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ আতিয়ার রহমান শেখ, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক জিয়াউর রহমান এবং খুলনা মেডিকেল কলেজের মানসিক রোগ বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডাঃ এস এম ফরিদুজ্জামান। সভাপতিত্ব করেন খুলনা জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেন। স্বাগত জানান খুলনা জেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের উপপরিচালক খান মোতাহার হোসেন।

আলোচনা শেষে ইউসেপ এর পরিবেশনায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান হয়। এর আগে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালি নগরীর শহীদ হাদিস পার্ক থেকে যাত্রা শুরু করে অনুষ্ঠান স্থলে এসে শেষ হয়।

দিবসটি পালন উপলক্ষে খুলনা আঞ্চলিক তথ্য অফিস, জেলা তথ্য অফিসসহ অন্যান্য সরকারি অফিসে ২ থেকে ৪ এপ্রিল তিন দিনব্যাপী নীলবাতি প্রজ্বলন করা হচ্ছে।

Tag :
About Author Information

বাংলার দিনকাল

Editor and publisher

খুলনায় বিশ্ব অটিজম সচেতনতা দিবস পালিত

প্রকাশিত সময় ০৬:২৬:২৩ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২ এপ্রিল ২০১৯

তথ্যবিবরণী :

সারা বিশ্বের সাথে একযোগে আজ (মঙ্গলবার) খুলনায় ১২তম বিশ্ব অটিজম সচেতনতা দিবস পালিত হয়। এবছর দিবসটির প্রতিপাদ্য ‘সহায়ক প্রযুক্তির ব্যবহার অটিজম বৈশিষ্ট্যসম্পন্ন ব্যক্তির অধিকার’।

দিবসটি পালন উপলক্ষে খুলনা অফিসার্স ক্লাবে জেলা প্রশাসন ও জেলা সমাজসেবা কার্যালয় আয়োজিত আলোচনা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক।

প্রধান অতিথি বলেন, অটিজম নিয়ে আমাদের দেশের মানুষের মধ্যে এক সময় সচেতনতার অভাব থাকলেও প্রধানমন্ত্রীর কন্যা সায়মা ওয়াজেদ পুতুলের ঐকান্তিক প্রচেষ্ঠার ফলে তা এখন অনেক বৃদ্ধি পেয়েছে। সুষ্ঠু পরিচর্যার মাধ্যমে অটিজম আক্রান্ত শিশুরাও যে সমাজের সম্পদে পরিণত হতে পারে সে বিষয়ে মানুষকে আরও সচেতন করে তুলতে হবে। পাশাপাশি যে সকল কারণে শিশুরা অটিজমে আক্রান্ত হয় সে বিষয়ে বাবা-মায়ের আগে থেকেই সতর্ক থাকতে হবে।

পরে প্রধান অতিথি অটিজম আক্রান্ত শিশুদের মাঝে হুইল চেয়ারসহ সহায়ক উপকরণ বিতরণ করেন।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বিভাগীয় সমাজসেবা কার্যালয়ের পরিচালক এ কে এম শামিমুল হক ছিদ্দিকী, ডেপুটি সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ আতিয়ার রহমান শেখ, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক জিয়াউর রহমান এবং খুলনা মেডিকেল কলেজের মানসিক রোগ বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডাঃ এস এম ফরিদুজ্জামান। সভাপতিত্ব করেন খুলনা জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেন। স্বাগত জানান খুলনা জেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের উপপরিচালক খান মোতাহার হোসেন।

আলোচনা শেষে ইউসেপ এর পরিবেশনায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান হয়। এর আগে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালি নগরীর শহীদ হাদিস পার্ক থেকে যাত্রা শুরু করে অনুষ্ঠান স্থলে এসে শেষ হয়।

দিবসটি পালন উপলক্ষে খুলনা আঞ্চলিক তথ্য অফিস, জেলা তথ্য অফিসসহ অন্যান্য সরকারি অফিসে ২ থেকে ৪ এপ্রিল তিন দিনব্যাপী নীলবাতি প্রজ্বলন করা হচ্ছে।