মঙ্গলবার, ০৯ অগাস্ট ২০২২, ০৫:০৯ অপরাহ্ন
শিরোনাম
বিশেষ নিবন্ধ : শ্রাবনের চরিত্রহনণ বঙ্গবন্ধু হয়ে ওঠার পেছনের অনুপ্রেরণা বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব বাংলাদেশ-ভারত আমদানি-রফতানি চুক্তির প্রথম ট্রায়ালের পণ্য মোংলায় খালাস : মেঘালয় ও আসামের উদ্দেশ্যে যাত্রা নির্বাচন আসলেই এদেশের কিছু ধান্দাবাজ একত্রিত হয় : তালুকদার খালেক দেশে রিজার্ভ নেই-একদিন দেখবেন শেখ হাসিনাও মসনদে নেই : বিএনপি বঙ্গমাতার গুণাবলী ধারণ করে মেয়েদের এগিয়ে যেতে হবে : খুবি উপাচার্য বঙ্গবন্ধুর বাঙালির মুক্তির মহানায়ক হয়ে ওঠার পেছনে প্রেরণা ছিলেন  বঙ্গমাতা : সিটি মেয়র বঙ্গবন্ধু ছিলেন জাতির কান্ডারি ও রাজনীতির কবি : এসডিএফ চেয়ারম্যান আব্দুস সামাদ বাংলাদেশ-ভারত ট্রানজিট চুক্তি বাস্তবায়নে ভারতের ট্রায়াল জাহাজ মোংলা বন্দরে’ খুলনায় বঙ্গমাতা ফজিলাতুন নেছা মুজিবের জন্মবার্ষিকীতে দু:স্থ্যদের মাঝে সেলাই মেশিন বিতরন

খুলনায় জাতীয় পুষ্টি সপ্তাহ শুরু

সংবাদদাতার নাম :
  • প্রকাশিত সময় মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল, ২০১৯
  • ৫৪৭ পড়েছেন

তথ্যবিবরণী :
আজ ২৩ এপ্রিল থেকে ২৯ এপ্রিল পর্যন্ত সারা দেশের মতো খুলনায়ও জাতীয় পুষ্টি সপ্তাহ শুরু হয়েছে। পুষ্টি সপ্তাহ উপলক্ষে ২৩ এপ্রিল (মঙ্গলবার) সকালে স্কুল হেলথ ক্লিনিক সম্মেলনকক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সপ্তাহের এবারের প্রতিপাদ্য ‘খাদ্যের কথা ভাবলে, পুষ্টির কথাও ভাবুন এবং পুষ্টি উন্নয়নের বুনিয়াদ’। খুলনা জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের সহায়তায় জেলা পুষ্টি সমন্বয় কমিটি এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

আলোচনা সভায় অতিথিরা বলেন, সকলকে পুষ্টি ও মানসম্মত খাবার খেতে গ্রহণ করতে হবে। উৎপাদন থেকে শুরু করে খাবার টেবিল পর্যন্ত সকল খাদ্য ভেজালমুক্ত ও বিষমুক্ত রাখতে হবে। দেশ এখন খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ। ভাতের ওপর চাপ কমিয়ে আমাদের শাকসবজি ও ফলমূল বেশি খাওয়া জরুরি। তাঁরা আরও বলেন, বাইরের ফাস্ট ফুড ও জাংক ফুডের পরিবর্তে বাসায় তৈরি খাবারের ওপর বেশি জোর দিতে হবে। এজন্য মায়েদের দায়িত্বশীল ভূমিকা পালন করতে হবে। জাতীয় পুষ্টি সপ্তাহ পালন জনগণকে পুষ্টি সম্পর্কে সচেতন করার পাশাপশি সুস্থ্য, সবল ও সমৃদ্ধশালী জাতি গঠনে সহায়ক ভূমিকা রাখবে বলে তাঁরা আশা প্রকাশ করেন।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন খুলনা স্বাস্থ্য বিভাগের পরিচালক ডাঃ রাশেদা সুলতানা। খুলনার সিভিল সার্জন ডাঃ এএসএম আব্দুর রাজ্জাকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) সারোয়ার আহমেদ সালেহীন, এনজিও প্রতিনিধি ডাঃ মোঃ মোস্তাক আহমেদ এবং সদর হাসপাতালের শিশু বিশেষজ্ঞ ডাঃ মোঃ সরাফাত হোসাইন। স্বাগত জানান ডেপুটি সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ আতিয়ার রহমান শেখ। সভা পরিচালনা করেন সিনিয়র স্বাস্থ্য শিক্ষা কর্মকর্তা মোঃ আবুল কালাম আজাদ।

এর আগে খুলনা জেনারেল হাসপাতাল চত্ত্বর থেকে বর্ণাঢ্য র‌্যালি শুরু হয়ে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে স্কুল হেলথ ক্লিনিকে এসে শেষ হয়। র‌্যালিতে বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ অংশগ্রহণ করে।

সংবাদটি শেয়ার করার জন্য অনুরোধ করা হলো

এ ধরনের আরো সংবাদ

© All rights reserved by www.banglardinkal.com (Established in 2017)

Hwowlljksf788wf-Iu