রাজারহাটে ছাত্রলীগের উদ্যোগে গরীব কৃষকের ধান কাটা অব্যাহত

75

রমেশ চন্দ্র সরকার , রাজারহাট (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি



রাজারহাটে বোরো মৌসুমের ধান কাটা সবেমাত্র শুরু। এখনো মাঠে মাঠে দোল খাচ্ছে সোনালী ধান। ধান কাটার মহা উৎসবে মেতে উঠেছে কৃষক পরিবার। বাড়ির উঠান গুলো কৃষাণ/কৃষাণিদের পদভারে মুখরিত। চারিদিকে শুধু ফসলের মাঠ। এ যেন এক সবুজের সমারোহ। গত তিন বছরের টানা বাম্পার ফলনের পর এ বছরেও ধানের বাম্পার ফলনের সম্ভাবনায় কৃষক স্বপ্ন দেখতে শুরু করছে। চলছে ধান কাটার ব্যাপক প্রস্তুতি। দামটাও একটু বেশি। ধানের মন প্রতি ১০৪০ টাকা সরকারি ঘোষণায় কৃষকের চোখে মুখে এখন শুধু স্বপ্ন আর স্বপ্ন। কিন্তু সেই স্বপ্নের ঘরে আগুন দিচ্ছে করোনা নামক প্রাণঘাতী এক ভাইরাস।

দেখা দিয়েছে কৃষি শ্রমিকের সংকট। কেউ কেউ নিজেরাই নিজেদের ধান কাটলেও অসহায় অক্ষম কৃষকরা পরছে মহাবিপদে। ঠিক এ মুহুর্তে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের নির্দেশে আজ ১৪ মে (বৃহস্পতিবার) রাজারহাট উপজেলা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা রোজা রেখে দ্বিতীয় দিনের মতো উপজেলার সদর ইউনিয়নের কিশামত পুনকরের অসহায় গরীব কৃষক মোঃ নজরুল ইসলামের ৩৬ শতক জমির ধান কেটে দিলো।

এ সময় ধান কাটায় অংশ নেয় উপজেলা ছাত্রলীগের আহবায়ক ও জেলা পরিষদ সদস্য মোঃ আব্দুস ছালাম এবং উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম আহবায়ক সুমন রায়সহ ছাত্রলীগের সদস্য বৃন্দ। এসময় নেতৃবৃন্দ জানান বাংলাদেশের যে কোন সংকটপূর্ণ মুহুর্তে ছাত্রলীগ মাঠে আছে ও থাকবে এবং ধান কাটার কাজ উপজেলা ছাত্রলীগের নেতৃত্বে অব্যাহত থাকবে। এদিকে কৃষক নজরুল ইসলাম ধান কেটে দেওয়ায় উপজেলা ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দসহ সকল সদস্যকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here