ঢাকা ০৮:১২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

পাইকগাছা পৌরসভার নির্মাণ করা পাকা সড়কের উপর প্রাচীর নির্মাণের চেষ্টা

পাইকগাছা (খুলনা) প্রতিনিধি :
পাইকগাছা পৌরসভার নির্মাণ করা সড়কের উপর পৌর স্যানেটারী ইন্সপেক্টর ইমদাদুল হক প্রাচীর নির্মাণ করার চেষ্টা করছেন বলে অভিযোগ করেছেন এলাকাবাসী।

এলাকাবাসীর বাঁধার মুখে বর্তমানে নির্মাণ কাজ বন্ধ রয়েছে। নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হলে প্রাচীরের কারণে কয়েকটি পরিবারের যাতায়াতের পথ বন্ধ হয়ে যাবে বলে অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগীরা। প্রাপ্ত অভিযোগে জানাগেছে, পৌরসভার স্যানেটারী ইন্সপেক্টর ৩নং ওয়ার্ডের বান্দিকাটী এলাকায় জায়গা-জমি কিনে বসতবাড়ী তৈরী করে বসবাস করছেন। প্রধান সড়ক থেকে ইমদাদুলের বসতবাড়ী পর্যন্ত পৌরসভা থেকে সরকারিভাবে ইটের সলিং (রাস্তা পাকা করণ) করা হয়েছে।

প্রতিবেশী মৃত গোলাপ নবীর ছেলে আব্দুল গাজী (৬৫) জানান, গত কয়েকদিন আগে ইমদাদুল হক তার বসতবাড়ীর সামনে থেকে প্রায় ৭০ ফুট লম্বা রাস্তার উপর দিয়ে প্রাচীর নির্মাণ করার চেষ্টা করছে। নির্মাণ করার লক্ষে রাস্তার উপর গর্ত খোড়ার পর আমরা প্রতিবেশী ও এলাকাবাসী মিলে কাজ বন্ধ রাখার জন্য অনুরোধ করেছি। রাস্তার উপর দিয়ে এ ধরণের প্রাচীর নির্মাণ করা হলে একদিকে আমরাসহ আশপাশ জমির মালিকদের যাতায়াতের পথ বন্ধ হয়ে যাবে। এ ব্যাপারে স্যানেটারী ইন্সপেক্টর ইমদাদুল হক জানান, পৌরসভার ইট বিছানো রাস্তা এটা সঠিক, তবে যাতায়াতের এ রাস্তার জন্য আমি পাশের জমি মালিক কামরুলের নিকট থেকে ১ শতক জায়গা ক্রয় করি। পরে পৌরসভা থেকে ওই রাস্তার উপর ইট বিছিয়ে দেয়। আমার নিরাপত্তার স্বার্থে প্রাচীর নির্মাণ করছি। বিষয়টি সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ড কাউন্সিলর গাজী আব্দুস সালামও জানেন। বর্তমানে নির্মাণ কাজ বন্ধ রয়েছে। বিষয়টি পৌর মেয়র সেলিম জাহাঙ্গীর নিষ্পত্তি করবেন বলে ইমদাদুল হক জানান।

Tag :
About Author Information

বাংলার দিনকাল

Editor and publisher

পাইকগাছা পৌরসভার নির্মাণ করা পাকা সড়কের উপর প্রাচীর নির্মাণের চেষ্টা

প্রকাশিত সময় ০৬:৫২:২৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ৭ এপ্রিল ২০১৯

পাইকগাছা (খুলনা) প্রতিনিধি :
পাইকগাছা পৌরসভার নির্মাণ করা সড়কের উপর পৌর স্যানেটারী ইন্সপেক্টর ইমদাদুল হক প্রাচীর নির্মাণ করার চেষ্টা করছেন বলে অভিযোগ করেছেন এলাকাবাসী।

এলাকাবাসীর বাঁধার মুখে বর্তমানে নির্মাণ কাজ বন্ধ রয়েছে। নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হলে প্রাচীরের কারণে কয়েকটি পরিবারের যাতায়াতের পথ বন্ধ হয়ে যাবে বলে অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগীরা। প্রাপ্ত অভিযোগে জানাগেছে, পৌরসভার স্যানেটারী ইন্সপেক্টর ৩নং ওয়ার্ডের বান্দিকাটী এলাকায় জায়গা-জমি কিনে বসতবাড়ী তৈরী করে বসবাস করছেন। প্রধান সড়ক থেকে ইমদাদুলের বসতবাড়ী পর্যন্ত পৌরসভা থেকে সরকারিভাবে ইটের সলিং (রাস্তা পাকা করণ) করা হয়েছে।

প্রতিবেশী মৃত গোলাপ নবীর ছেলে আব্দুল গাজী (৬৫) জানান, গত কয়েকদিন আগে ইমদাদুল হক তার বসতবাড়ীর সামনে থেকে প্রায় ৭০ ফুট লম্বা রাস্তার উপর দিয়ে প্রাচীর নির্মাণ করার চেষ্টা করছে। নির্মাণ করার লক্ষে রাস্তার উপর গর্ত খোড়ার পর আমরা প্রতিবেশী ও এলাকাবাসী মিলে কাজ বন্ধ রাখার জন্য অনুরোধ করেছি। রাস্তার উপর দিয়ে এ ধরণের প্রাচীর নির্মাণ করা হলে একদিকে আমরাসহ আশপাশ জমির মালিকদের যাতায়াতের পথ বন্ধ হয়ে যাবে। এ ব্যাপারে স্যানেটারী ইন্সপেক্টর ইমদাদুল হক জানান, পৌরসভার ইট বিছানো রাস্তা এটা সঠিক, তবে যাতায়াতের এ রাস্তার জন্য আমি পাশের জমি মালিক কামরুলের নিকট থেকে ১ শতক জায়গা ক্রয় করি। পরে পৌরসভা থেকে ওই রাস্তার উপর ইট বিছিয়ে দেয়। আমার নিরাপত্তার স্বার্থে প্রাচীর নির্মাণ করছি। বিষয়টি সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ড কাউন্সিলর গাজী আব্দুস সালামও জানেন। বর্তমানে নির্মাণ কাজ বন্ধ রয়েছে। বিষয়টি পৌর মেয়র সেলিম জাহাঙ্গীর নিষ্পত্তি করবেন বলে ইমদাদুল হক জানান।