শুক্রবার, ১৯ অগাস্ট ২০২২, ০৮:০২ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
জয়বাংলা শ্লোগান দিয়ে হেলমেটধারীরা সমাবেশে হামলা চালায় : বিএনপি নেতৃবৃন্দ খুলনায় দুইস্থানে আওয়ামীলীগ-বিএনপির সভা আহবান, পুলিশের নিষেধাজ্ঞা জারি খুলনা জেলা পরিষদের চিত্রাংকন প্রতিযোগীতার সনদপত্র ও পুরস্কার বিতরন খুলনা জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের উদ্যোগে জাতীয় শোক দিবসে ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প বিএনপির কর্মীসভায় হামলা-ভাংচুর, শতাধিক নেতাকর্মী আহত তোরখাদায় যুবলীগের উদ্যোগে নানা কর্মসূচির মাধ্যমে জাতীয় শোক দিবস পালন দাকোপে জাতীয় শোক দিবসের অনুষ্ঠানে রাজাকার অতিথি, মুক্তিযোদ্ধাদের অনুষ্ঠান বর্জন দেশব্যাপী সিরিজ বোমা হামলার পৃষ্ঠপোষকদের ফাঁসি দিতে হবে আওয়ামীলীগ তেরখাদা উপজেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে বিক্ষোভ মিছিল প্লাস্টিক দূষণ রোধকল্পে টেকসই ও সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনা অপরিহার্য : ড. মুহাম্মদ আলমগীর

ডাক্তার ও নার্সদের অবহেলায় দাকোপে আবারও প্রসুতি মায়ের মৃত্যু

সংবাদদাতার নাম :
  • প্রকাশিত সময় রবিবার, ৭ জুলাই, ২০১৯
  • ৪৯৩ পড়েছেন

দাকোপ(খুলনা)প্রতিনিধি:

ডাক্তার ও নার্সদের অবহেলার কারণে দাকোপে তানিয়া খাতুন(৩৫) নামের এক প্রসুতি মায়ের মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

মৃতের পারিবারিক সূত্রে জানাযায়, প্রসুতি মা তানিয়াকে গত ৫ জুলাই শুক্রবার বিকাল ৪টায় বাচ্চা প্রসবের জন্য দাকোপ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। গাইনী ডাক্তার সন্তোষ মজুমদার প্রতি শুক্রবার বাজুয়াতে রুগী দেখতে যান, তিনি হাসপাতালে ছিলেন না। মোবাইল ফোনে তার কথামত রুগী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ভর্তি করানোর পর ডাক্তার এসে বলেন নরমাল ডেলিভারি হবে। সেভাবে রাত কেটে যায়। রাত্রে রুগী চিৎকার চেচামেচি করলেও ডাক্তার ও নার্সদের ডেকে পাওয়া যায়নি। নার্সরা বলে, রুগী নরমাল ডেলিভারি হবে কোনো সমস্যা নেই। পরদিন অর্থাৎ ৬ জুলাই শনিবার সকালে রুগীর প্রচন্ড পেইন উঠলে ডাক্তার দ্রুত রুগীকে ওটিতে নিতে বলেন এবং সিজার করেন। সিজারে অনেক সময় লাগায় রগীর আত্মীয়রা চিন্তিত হয়ে পড়েন। সিজারের মাধ্যমে সন্তান প্রসবের পর রুগীর অবস্থা খারাপ হলে ডাক্তার জরুরী রুগী খুলনাতে নেওয়ার কথা বলেন। সকাল ১০টার দিকে রুগী গাজী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ বিষয়ে তথ্য জানার জন্য ডাক্তার সন্তোষ মজুমদারকে হাসপাতালে না পেয়ে মোবাইল ফোনে বারবার সংযোগ দেওয়ার চেষ্টা করেও সংযোগ পাওয়া সম্ভব হয়নি। মৃতের ভাসুর মামুনুর রশিদ সাংবাদিকদের জানান ডাক্তার ও নার্সদের অবহেলার কারণে তার ছোট ভাইয়ের স্ত্রীর মৃত্যু হয়েছে। সময়মত চিকিৎসা দিলে রুগীর মৃত্যু হত না।

সংবাদটি শেয়ার করার জন্য অনুরোধ করা হলো

এ ধরনের আরো সংবাদ

© All rights reserved by www.banglardinkal.com (Established in 2017)

Hwowlljksf788wf-Iu