ঢাকা ০৭:২৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

খুলনা জেলা পর্যায়ে ভিশন-২০২০ কমিটির সভা অনুষ্ঠিত

তথ্যবিবরণী : দেশব্যাপী পরিহারযোগ্য অন্ধত্ব নিবারণকল্পে খুলনা জেলার চক্ষু স্বাস্থ্যসেবায় নিয়োজিত জাতীয় ও আন্তর্জাতিক বেসরকারি সংস্থাসমূহের সমন্বয়ের গঠিত জেলা পর্যায়ে ভিশন-২০২০ কমিটির সভা ২৭ মে (সোমবার) সকালে খুলনা স্কুল হেলথ ক্লিনিকের সম্মেলনকক্ষে অনুষ্ঠিত হয়। বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা সাইটসেভার্সের সহযোগিতায় ভিশন-২০২০ কমিটি এবং খুলনা সিভিল সার্জন অফিস এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

এতে সভাপতিত্ব করেন ভিশন-২০২০ কমিটির সভাপতি এবং খুলনার সিভিল সার্জন ডাঃ এএসএম আব্দুর রাজ্জাক।

সভাপতি বলেন, ২০২০ সালের মধ্যে বাংলাদেশ থেকে অন্ধত্ব কমিয়ে আনতে হবে। পরিহারযোগ্য অন্ধত্বের ঘটনা যেন দেশে না ঘটে সে জন্য চিকিৎসকদের পাশাপাশি এই কমিটির সকলকে একযোগে কাজ করতে হবে। জনসাধারণের মধ্যে সচেতনতা গড়ে তুলতে হবে। শিশুর যেন ভিটামিন ‘এ’ এর অভাবে না ভোগে সেদিকে খেয়াল রাখা প্রয়োজন। শাকসবজির মধ্যে কচুশাকে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিট ‘এ’ রয়েছে।

সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন খুলনা আঞ্চলিক তথ্য অফিসের উপপ্রধান তথ্য অফিসর ম. জাভেদ ইকবাল, বিএনএসবি চক্ষু হাসপাতালের পরিচালক ডাঃ মোঃ আব্দুল হান্নান, ডাঃ মনোজ কুমার বোস, ডাঃ সৈয়দ আলী এবং শামীমা সুলতানা শিলু প্রমুখ। স্বাগত জানান কমিটির সদস্য সচিব ডাঃ সত্যজিত মন্ডল। ধারণাপত্র উপস্থাপন করেন ডাঃ শীতেষ ব্যানার্জী।

সভায় সরকারি ও বেসরকারি দপ্তরের কর্মকর্তাসহ কমিটির অন্যান্য সদস্যগণ অংশগ্রহণ করেন।

Tag :
About Author Information

বাংলার দিনকাল

Editor and publisher
জনপ্রিয় সংবাদ

খুবিতে ‘জাতীয় শুদ্ধাচার কৌশল’ শীর্ষক প্রশিক্ষণ উদ্বোধন

খুলনা জেলা পর্যায়ে ভিশন-২০২০ কমিটির সভা অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত সময় ০৯:২০:৫৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০১৯

তথ্যবিবরণী : দেশব্যাপী পরিহারযোগ্য অন্ধত্ব নিবারণকল্পে খুলনা জেলার চক্ষু স্বাস্থ্যসেবায় নিয়োজিত জাতীয় ও আন্তর্জাতিক বেসরকারি সংস্থাসমূহের সমন্বয়ের গঠিত জেলা পর্যায়ে ভিশন-২০২০ কমিটির সভা ২৭ মে (সোমবার) সকালে খুলনা স্কুল হেলথ ক্লিনিকের সম্মেলনকক্ষে অনুষ্ঠিত হয়। বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা সাইটসেভার্সের সহযোগিতায় ভিশন-২০২০ কমিটি এবং খুলনা সিভিল সার্জন অফিস এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

এতে সভাপতিত্ব করেন ভিশন-২০২০ কমিটির সভাপতি এবং খুলনার সিভিল সার্জন ডাঃ এএসএম আব্দুর রাজ্জাক।

সভাপতি বলেন, ২০২০ সালের মধ্যে বাংলাদেশ থেকে অন্ধত্ব কমিয়ে আনতে হবে। পরিহারযোগ্য অন্ধত্বের ঘটনা যেন দেশে না ঘটে সে জন্য চিকিৎসকদের পাশাপাশি এই কমিটির সকলকে একযোগে কাজ করতে হবে। জনসাধারণের মধ্যে সচেতনতা গড়ে তুলতে হবে। শিশুর যেন ভিটামিন ‘এ’ এর অভাবে না ভোগে সেদিকে খেয়াল রাখা প্রয়োজন। শাকসবজির মধ্যে কচুশাকে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিট ‘এ’ রয়েছে।

সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন খুলনা আঞ্চলিক তথ্য অফিসের উপপ্রধান তথ্য অফিসর ম. জাভেদ ইকবাল, বিএনএসবি চক্ষু হাসপাতালের পরিচালক ডাঃ মোঃ আব্দুল হান্নান, ডাঃ মনোজ কুমার বোস, ডাঃ সৈয়দ আলী এবং শামীমা সুলতানা শিলু প্রমুখ। স্বাগত জানান কমিটির সদস্য সচিব ডাঃ সত্যজিত মন্ডল। ধারণাপত্র উপস্থাপন করেন ডাঃ শীতেষ ব্যানার্জী।

সভায় সরকারি ও বেসরকারি দপ্তরের কর্মকর্তাসহ কমিটির অন্যান্য সদস্যগণ অংশগ্রহণ করেন।