বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন পূরণে কৃষি ও কৃষকের উন্নয়নে কাজ করছে সরকার – এমপি বাবু

172

ওবায়দুল কবির (সম্রাট) কয়রা :

খুলনা -৬ সংসদ সদস্য আলহাজ্ব মোঃ আক্তারুজ্জামান বাবু বলেছেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান গভীরভাবে বিশ্বাস করতেন, কৃষির উন্নতি ছাড়া এদেশের মানুষের মুক্তি আসতে পারে না। কৃষকেরাই এদেশের প্রাণ। এদেশের কৃষক-শ্রমিক মেহনতি মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনের ভাবনা বঙ্গবন্ধু আজীবন লালন করেছেন। বঙ্গবন্ধু জানতেন এদেশের কৃষক ও গ্রামীণ জনগোষ্ঠী এদেশের কৃষি ও মাটির সঙ্গে সম্পৃক্ত। বঙ্গবন্ধু ছিলেন কৃষিবান্ধব মানুষ। সমৃদ্ধ ও স্বনির্ভর উন্নত বাংলাদেশ এবং সোনার বাংলা গড়ে তোলার স্বপ্ন দেখেছিলেন তিনি।দেশকে সুন্দরভাবে গড়ে তোলার জন্য কৃষির উন্নতির কোন বিকল্প নেই। বঙ্গবন্ধু স্বপ্ন পূরণে কৃষি ও কৃষকের উন্নয়নে কাজ করছে সরকার। তিনি শনিবার (২০ জুন) সকাল ১১ টায় গোপালগঞ্জ, খুলনা, বাগেরহাট, সাতক্ষীরা ও পিরোজপুর কৃষি উন্নয়ন প্রকল্পের সহযোগীতায় এবং কয়রা উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের আয়োজনে উপজেলা পরিষদের হল রুমে তিন দিন ব্যাপী কৃষি মেলার উদ্বোধন অনুষ্টানে উপজেলা নির্বাহী অফিসার শিমুল কুমার সাহার সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য কালে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের উন্নয়নের জন্য বিরামহীন ভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়তে শেখ হাসিনার পাশে থেকে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ ভাবে কাজ করে যেতে হবে।দেশ এখন অনেক এগিয়ে গেছে। সারাবিশ্বে এখন বাংলাদেশের সুনাম রয়েছে। আমরা এখন এমন কোনও দিক নেই যেখানে উন্নতি করি নাই। এই উন্নতি যাতে থেমে না যায় সেজন্য সবাইকে একসঙ্গে কাজ করে যেতে হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে আরও শক্তিশালী করতে হবে।’তিনি কৃষকের উদ্দেশ্য করে বলেন, বাংলাদেশের শতকরা ৮০ জন লোক কৃষক, কৃষি আমাদের মূল পেশা। কৃষির কারণে বাংলাদেশ আজ একটি উন্নয়নশীল দেশের কাতারে অবস্থান করছে। আামাদের সন্মিলিত চেষ্টা কৃষি সেক্টরে আরো উন্নয়ন সাধিত করতে ১ ইঞ্চি জমি ও যাতে ফাকা না রাখা হয় সে বিষয়ে আমাদের সকলের সচেতন হতে হবে বলে আশা রাখি। আমাদের কয়রার মাটি খুবই উর্বর। তুলনামূলকভাবে জমির পরিমান কম হলেও মহান আল্লাহর রহমতে কয়রার মাটিতে যা চাষাবাদ করেন কৃষকরা সবই সোনার ফলন হয়। মেলাকে প্রাণবন্ত করতে কয়রার সর্বসাধারণকেকে স্বাস্থ্য বিধি মেনে মেলা পরিদর্শণের আমন্ত্রণ জানান এমপি আক্তারুজ্জামান বাবু ।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য উপজেলা কৃষি অফিসার এস এম মিজান মাহমুদ, বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব এস এম শফিকুল ইসলাম, ভাইস চেয়ারম্যান কমলেশ কুমার সানা, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নাছিমা আলম, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) নূরে-ই আলম সিদ্দিকি, কয়রা থানা অফিসার ইনচার্জ মোঃ রবিউল হোসেন। অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারন সম্পাদক জাফরুল ইসলাম পাড়, জেলা যুবলীগ সাংগঠনিক সম্পাদক জসিম উদ্দিন বাবু,জেলা যুবলীগ নেতা শামীম সরকার, উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি মোঃ শরিফুল ইসলাম টিংকু,সহ-সভাপতি তরিকুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক(ভারপ্রাপ্ত) আমিনুল হক বাদল, সাংগঠনিক সম্পাদক মাসুদ রানা শেফার প্রমুখ।
মেলায় কৃষি উন্নয়ন প্রকল্পের বিভিন্ন স্টল গুলো ঘুরে ঘুরে দেখেন অতিথিরা। মেলায় ১৪ টি স্টল স্থান পেয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here