ঢাকা ০৭:৫৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

সুন্দরবনে বিলুপ্তির হুমকির মুখে থাকা তিন প্রজাতির ডলফিন সুরক্ষায় আরও তিনটি অভয়াশ্রম ঘোষনা করতে যাচ্ছে বনবিভাগ

খবর বিজ্ঞপ্তি :
সুন্দরবনে বিলুপ্তির হুমকিতে থাকা ইরাবতি, গাঙ্গেয়সহ তিন প্রজাতির ডলফিন সুরক্ষায় আরও তিনটি অভয়াশ্রম ঘোষনা করতে যাচ্ছে বনবিভাগ।

বৃহষ্পতিবার খুলনায় সুন্দরবনের জলজ জীববৈচিত্র রক্ষা, বিলুপ্তির হুমকির মুখে থাকা ডলফিন সংরক্ষনে জনসচেতনতা সুষ্টি, সংরক্ষিত অভয়াশ্রম এলাকা বৃদ্ধি ও উন্নয়ণ ব্যবস্থাপনা জোরদার করতে ডলফিস কনজারভেশন স্বেচ্ছাসেবী টিমের সদস্যদের প্রশিক্ষন কর্মশালায় এসব তথ্য জানান সুন্দরবনবিভাগের কর্মকর্তারা।

নগরীর সিএসএস আভা সেন্টারে এক্সপান্ডিং দি প্রোটেকটেড এরিয়া সিস্টেম টু ইনকোরপোরেট ইম্পর্টেন্ট এ্যাকুয়াটিক সিষ্টেম প্রকল্পের সহযোগীতায় বনবিভাগ, আইইউসিএন ও জিইএফের যৌথ উদ্যোগে অনুষ্ঠিত দিনব্যাপী প্রশিক্ষনের উদ্বোধন করেন খুলনার অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার নিশ্চিন্ত কুমার পোদ্দার। খুলনা অঞ্চলের বনসংরক্ষক আমীর হোসাইন চৌধুরীল সভাপতিত্বে প্রশিক্ষন কর্মশালায় খুলনা বন্যপ্রানী সংরক্ষন বিভাগের ডিএফও মদিনুল আহসান, প্রকৃতি ব্যবস্থা বিভাগের ডিএফও নির্মল কুমার পাল, সুন্দরবন পশ্চিম বিভাগের ডিএফও বশিরুল আল-মামুন, ডলফিন বিশেষজ্ঞ জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর কামরুল আহসান, প্রকল্প পরিচালক মো: রেজাউল করিম, আইইউসিএনের সরোয়ার আলম দিপুসহ সংশ্লিষ্ঠ কর্মখর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

কর্মশালায় বিশেষজ্ঞরা বলেন, শুধুই আইন দিয়ে সুন্দরবন ও এর জলজপরিবেশ এবং ডলফিনের মত জলজপ্রানীকে রক্সা করা যাবে না। এজন্য সুন্দরবন সংশ্লিষ্ট এলাকার মানুষের মধ্যে সচেতনতা সৃষ্টি করতে হবে। যেন ডরফিনের বিচরন ক্ষেত্র বিনষ্ট না হয়, বিষ প্রয়োগে মাছ ধরা বন্ধ, খাদ্য সংকট দুর করা এবং জেলের জালে আটকা পড়া ডলফিনকে রক্ষা করতে ব্যবস্থা নিতে হবে। বন বিভাগ স্বেচ্ছাসেবী টিমের মাধ্যমে যে ব্যবস্থাপনা কাযর্ক্রম শুরু করেছে এটি সফল হলে সারা বিশ্বে এটি একটি মডেল হিসেবে পরিগনিত হবে বলেও আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

দিনব্যাপী প্রশিক্ষনে খুলনা ও বাগেরহাট জেলা সুন্দরবন সংলগ্ন এলাকার ৬টি ডলফিন কনজারভেশন টিমের ৬০জন স্বেচ্ছাসেবী সদস্য অংশগ্রহন করেন। প্রশিক্ষণ শেষে স্বেচ্ছাসেবী টিমের সদস্যদের মাঝে ডলফিন কনজারভেশন কাযর্ক্রমের উপকরন বিতরন করা হয়।

উল্লেখ্য, সুন্দরবনের বিদপান্ন তিন প্রজাতির ডলফিন সুরক্ষায় ২০১৬ সালের ডিসেম্বর মাসে গ্লোবাল এনভায়রনমেন্ট ফ্যাসিলিটি(জিইএফ)-এর অর্থায়নে তিন বছর মেয়াদী এ প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে।

Tag :
About Author Information

বাংলার দিনকাল

Editor and publisher
জনপ্রিয় সংবাদ

খুবিতে ‘জাতীয় শুদ্ধাচার কৌশল’ শীর্ষক প্রশিক্ষণ উদ্বোধন

সুন্দরবনে বিলুপ্তির হুমকির মুখে থাকা তিন প্রজাতির ডলফিন সুরক্ষায় আরও তিনটি অভয়াশ্রম ঘোষনা করতে যাচ্ছে বনবিভাগ

প্রকাশিত সময় ০৫:৪৪:৩৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৬ মে ২০১৯

খবর বিজ্ঞপ্তি :
সুন্দরবনে বিলুপ্তির হুমকিতে থাকা ইরাবতি, গাঙ্গেয়সহ তিন প্রজাতির ডলফিন সুরক্ষায় আরও তিনটি অভয়াশ্রম ঘোষনা করতে যাচ্ছে বনবিভাগ।

বৃহষ্পতিবার খুলনায় সুন্দরবনের জলজ জীববৈচিত্র রক্ষা, বিলুপ্তির হুমকির মুখে থাকা ডলফিন সংরক্ষনে জনসচেতনতা সুষ্টি, সংরক্ষিত অভয়াশ্রম এলাকা বৃদ্ধি ও উন্নয়ণ ব্যবস্থাপনা জোরদার করতে ডলফিস কনজারভেশন স্বেচ্ছাসেবী টিমের সদস্যদের প্রশিক্ষন কর্মশালায় এসব তথ্য জানান সুন্দরবনবিভাগের কর্মকর্তারা।

নগরীর সিএসএস আভা সেন্টারে এক্সপান্ডিং দি প্রোটেকটেড এরিয়া সিস্টেম টু ইনকোরপোরেট ইম্পর্টেন্ট এ্যাকুয়াটিক সিষ্টেম প্রকল্পের সহযোগীতায় বনবিভাগ, আইইউসিএন ও জিইএফের যৌথ উদ্যোগে অনুষ্ঠিত দিনব্যাপী প্রশিক্ষনের উদ্বোধন করেন খুলনার অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার নিশ্চিন্ত কুমার পোদ্দার। খুলনা অঞ্চলের বনসংরক্ষক আমীর হোসাইন চৌধুরীল সভাপতিত্বে প্রশিক্ষন কর্মশালায় খুলনা বন্যপ্রানী সংরক্ষন বিভাগের ডিএফও মদিনুল আহসান, প্রকৃতি ব্যবস্থা বিভাগের ডিএফও নির্মল কুমার পাল, সুন্দরবন পশ্চিম বিভাগের ডিএফও বশিরুল আল-মামুন, ডলফিন বিশেষজ্ঞ জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর কামরুল আহসান, প্রকল্প পরিচালক মো: রেজাউল করিম, আইইউসিএনের সরোয়ার আলম দিপুসহ সংশ্লিষ্ঠ কর্মখর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

কর্মশালায় বিশেষজ্ঞরা বলেন, শুধুই আইন দিয়ে সুন্দরবন ও এর জলজপরিবেশ এবং ডলফিনের মত জলজপ্রানীকে রক্সা করা যাবে না। এজন্য সুন্দরবন সংশ্লিষ্ট এলাকার মানুষের মধ্যে সচেতনতা সৃষ্টি করতে হবে। যেন ডরফিনের বিচরন ক্ষেত্র বিনষ্ট না হয়, বিষ প্রয়োগে মাছ ধরা বন্ধ, খাদ্য সংকট দুর করা এবং জেলের জালে আটকা পড়া ডলফিনকে রক্ষা করতে ব্যবস্থা নিতে হবে। বন বিভাগ স্বেচ্ছাসেবী টিমের মাধ্যমে যে ব্যবস্থাপনা কাযর্ক্রম শুরু করেছে এটি সফল হলে সারা বিশ্বে এটি একটি মডেল হিসেবে পরিগনিত হবে বলেও আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

দিনব্যাপী প্রশিক্ষনে খুলনা ও বাগেরহাট জেলা সুন্দরবন সংলগ্ন এলাকার ৬টি ডলফিন কনজারভেশন টিমের ৬০জন স্বেচ্ছাসেবী সদস্য অংশগ্রহন করেন। প্রশিক্ষণ শেষে স্বেচ্ছাসেবী টিমের সদস্যদের মাঝে ডলফিন কনজারভেশন কাযর্ক্রমের উপকরন বিতরন করা হয়।

উল্লেখ্য, সুন্দরবনের বিদপান্ন তিন প্রজাতির ডলফিন সুরক্ষায় ২০১৬ সালের ডিসেম্বর মাসে গ্লোবাল এনভায়রনমেন্ট ফ্যাসিলিটি(জিইএফ)-এর অর্থায়নে তিন বছর মেয়াদী এ প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে।