ঢাকা ০৮:১৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

খুলনায় শিল্পে পরিবেশ সচেতনতা বিষয়ে সেমিনার অনুষ্ঠিত

তথ্যবিবরণী : ‘শিল্পে পরিবেশ সচেতনতা’ শীর্ষক সেমিনার ২৮ মে (মঙ্গলবার) সকালে বিসিক, খুলনা শিল্প সহায়ক কেন্দ্র সম্মেলনকক্ষে অনুষ্ঠিত হয়। বিসিক শিল্প সহায়ক কেন্দ্র, খুলনা ও প্রযুক্তি বিভাগ বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প কর্পোরেশন (বিসিক), ঢাকা যৌথভাবে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন খুলনার বিভাগীয় কমিশনার লোকমান হোসেন মিয়া।

সেমিানের বিশেষ অতিথি ছিলেন বিসিক, ঢাকার পরিচালক (প্রযুক্তি) ড. মোহা: আব্দুস ছালাম,খুলনা পরিবেশ অধিদপ্তরের পরিচালক মোঃ হাবিবুল হক খান এবং অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (এলএ) মোঃ ইকবাল হোসেন। খুলনা ও বরিশাল বিভাগ বিসিকের আঞ্চলিক পরিচালক বাবুল চন্দ্র নাথ এতে সভাপতিত্ব করেন। স্বাগত জানান খুলনা বিসিকের উপমহাব্যবস্থাপক মোঃ আতিয়ার রহমান। প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন খুলনা বিশ^বিদ্যালয়ের পরিবেশ বিজ্ঞান ডিসিপ্লিনের প্রফেসর ড. দিলীপ কুমার দত্ত।

সেমিনারে প্রফেসর ড. দিলীপ কুমার দত্ত উল্লেখ করেন, প্রাকৃতিক পরিবেশের সাবলীল আচরণে সম্পৃক্ত শিল্পের বিকাশ কখনো বিঘ্নিত হয় না এবং যান্ত্রিকতার সীমাবদ্ধতা না থাকলে কালের প্রবাহে বিলীন হয়ে যায় না। বাংলাদেশের মোট শিল্প প্রতিষ্ঠান ৭.৮১ মিলিয়ন এর মধ্যে ৮৮ শতাংশ হলো কুটির শিল্প এবং ১১ শতাংশ হলো ক্ষুদ্র শিল্প। জলবায়ু দ্রুত পরিবর্তনের মূখ্য চালক হিসেবে এখন শিল্প-দুষণকেই সম্পূর্ণ দায়ী করা হয়। খুলনা জেলার মোট শিল্প প্রতিষ্ঠানের ৯০ শতাংশের বেশিই কুটির শিল্প। আর ক্ষুদ্র ও মাইক্রো শিল্পের সংখ্যা ১০ শতাংশের কিছু কম। অর্থাৎ শিল্পজাত দূষণে স্থানীয় পর্যায়ে ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্পের যথেষ্ট ভূমিকা রয়েছে। তাই ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্পে যারা নিয়োজিত পরিবেশ সচেতনার প্রয়োজন তাদেরই সবচেয়ে বেশি। সাম্প্রতিক সময়ে যোগাযোগ ব্যবস্থার জন্যে (যেমন পদ্মাসেতু) খুলনা অঞ্চলে শিল্পায়নের চাহিদা বহুগুণ বৃদ্ধি পেয়েছে। তাই শিল্পায়নের সর্বক্ষেত্রে পরিবেশ সচেতনতা জরুরি হয়ে পড়েছে।

সেমিনারে প্রায় ৭০ জন শিল্প উদ্যোক্তা অংশগ্রহণ করেন।

Tag :
About Author Information

বাংলার দিনকাল

Editor and publisher

খুলনায় শিল্পে পরিবেশ সচেতনতা বিষয়ে সেমিনার অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত সময় ০৮:৪৬:২৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০১৯

তথ্যবিবরণী : ‘শিল্পে পরিবেশ সচেতনতা’ শীর্ষক সেমিনার ২৮ মে (মঙ্গলবার) সকালে বিসিক, খুলনা শিল্প সহায়ক কেন্দ্র সম্মেলনকক্ষে অনুষ্ঠিত হয়। বিসিক শিল্প সহায়ক কেন্দ্র, খুলনা ও প্রযুক্তি বিভাগ বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প কর্পোরেশন (বিসিক), ঢাকা যৌথভাবে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন খুলনার বিভাগীয় কমিশনার লোকমান হোসেন মিয়া।

সেমিানের বিশেষ অতিথি ছিলেন বিসিক, ঢাকার পরিচালক (প্রযুক্তি) ড. মোহা: আব্দুস ছালাম,খুলনা পরিবেশ অধিদপ্তরের পরিচালক মোঃ হাবিবুল হক খান এবং অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (এলএ) মোঃ ইকবাল হোসেন। খুলনা ও বরিশাল বিভাগ বিসিকের আঞ্চলিক পরিচালক বাবুল চন্দ্র নাথ এতে সভাপতিত্ব করেন। স্বাগত জানান খুলনা বিসিকের উপমহাব্যবস্থাপক মোঃ আতিয়ার রহমান। প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন খুলনা বিশ^বিদ্যালয়ের পরিবেশ বিজ্ঞান ডিসিপ্লিনের প্রফেসর ড. দিলীপ কুমার দত্ত।

সেমিনারে প্রফেসর ড. দিলীপ কুমার দত্ত উল্লেখ করেন, প্রাকৃতিক পরিবেশের সাবলীল আচরণে সম্পৃক্ত শিল্পের বিকাশ কখনো বিঘ্নিত হয় না এবং যান্ত্রিকতার সীমাবদ্ধতা না থাকলে কালের প্রবাহে বিলীন হয়ে যায় না। বাংলাদেশের মোট শিল্প প্রতিষ্ঠান ৭.৮১ মিলিয়ন এর মধ্যে ৮৮ শতাংশ হলো কুটির শিল্প এবং ১১ শতাংশ হলো ক্ষুদ্র শিল্প। জলবায়ু দ্রুত পরিবর্তনের মূখ্য চালক হিসেবে এখন শিল্প-দুষণকেই সম্পূর্ণ দায়ী করা হয়। খুলনা জেলার মোট শিল্প প্রতিষ্ঠানের ৯০ শতাংশের বেশিই কুটির শিল্প। আর ক্ষুদ্র ও মাইক্রো শিল্পের সংখ্যা ১০ শতাংশের কিছু কম। অর্থাৎ শিল্পজাত দূষণে স্থানীয় পর্যায়ে ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্পের যথেষ্ট ভূমিকা রয়েছে। তাই ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্পে যারা নিয়োজিত পরিবেশ সচেতনার প্রয়োজন তাদেরই সবচেয়ে বেশি। সাম্প্রতিক সময়ে যোগাযোগ ব্যবস্থার জন্যে (যেমন পদ্মাসেতু) খুলনা অঞ্চলে শিল্পায়নের চাহিদা বহুগুণ বৃদ্ধি পেয়েছে। তাই শিল্পায়নের সর্বক্ষেত্রে পরিবেশ সচেতনতা জরুরি হয়ে পড়েছে।

সেমিনারে প্রায় ৭০ জন শিল্প উদ্যোক্তা অংশগ্রহণ করেন।