ঢাকা ০৭:২৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

খুলনায় ইমাম ও মুয়াজ্জিন কল্যাণ ট্রাস্টের সদস্যদের মাঝে চেক বিতরণ

তথ্যবিবরণী : ধর্ম মন্ত্রণালয়ের অধীনে ইমাম ও মুয়াজ্জিন কল্যাণ ট্রাস্টের সদস্যদের মাঝে ২০১৮-১৯ অর্থ বছরের আর্থিক সাহায্যের চেক বিতরণ অনুষ্ঠান ২৭ মে (সোমবার) সকালে খুলনা জেলা প্রশাসকের সম্মেলনকক্ষে অনুষ্ঠিত হয়। খুলনা বিভাগীয় ইসলামিক ফাউন্ডেশন এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন খুলনার জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেন।

প্রধান অতিথি তাঁর বক্তৃতায় বলেন, সরকার ইমাম ও মুয়াজ্জিনের কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছে। এর একটি প্রমাণ হলো ইমাম এবং মুয়াজ্জিনের জন্য কল্যাণ ট্রাস্ট গঠন। এই ট্রাস্টে এ পর্যন্ত প্রায় ৩২ কোটি টাকা প্রদান করা হয়েছে। এই সরকার কওমি মাদ্রাসকে স্বীকৃতি দিয়েছে। এই সনদপত্র দিয়ে বিভিন্ন চাকুরিতে নিয়োগ দেওয়া হচ্ছে। তিনি বলেন, সরকার প্রতিটি জেলা ও উপজেলায় একটি করে ৫৬০ টি মডেল মসজিদ নির্মাণ প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। আলেম-ওলামা, ইমাম-মোয়াজ্জিনরা সমাজের নেতা হিসেবে সন্ত্রাস ও জঙ্গিতৎপরতা রোধে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারেন।

খুলনা বিভাগীয় ইসলামিক ফাউন্ডেশনের পরিচালক শাহীন বিন জামানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন খুলনার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (এলএ) মোঃ ইকবাল হোসেন।

পরে জেলা প্রশাসক মহানগরসহ নয়টি খুলনার উপজেলার প্রায় ৯১ জন ইমাম এবং মুয়াজ্জিনদের মঝে পাঁচ হাজার টাকা করে চার লাখ ৫৫ হাজার টাকার চেক বিতরণ করেন।

Tag :
About Author Information

বাংলার দিনকাল

Editor and publisher

খুলনায় ইমাম ও মুয়াজ্জিন কল্যাণ ট্রাস্টের সদস্যদের মাঝে চেক বিতরণ

প্রকাশিত সময় ০৯:২৫:০৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০১৯

তথ্যবিবরণী : ধর্ম মন্ত্রণালয়ের অধীনে ইমাম ও মুয়াজ্জিন কল্যাণ ট্রাস্টের সদস্যদের মাঝে ২০১৮-১৯ অর্থ বছরের আর্থিক সাহায্যের চেক বিতরণ অনুষ্ঠান ২৭ মে (সোমবার) সকালে খুলনা জেলা প্রশাসকের সম্মেলনকক্ষে অনুষ্ঠিত হয়। খুলনা বিভাগীয় ইসলামিক ফাউন্ডেশন এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন খুলনার জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেন।

প্রধান অতিথি তাঁর বক্তৃতায় বলেন, সরকার ইমাম ও মুয়াজ্জিনের কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছে। এর একটি প্রমাণ হলো ইমাম এবং মুয়াজ্জিনের জন্য কল্যাণ ট্রাস্ট গঠন। এই ট্রাস্টে এ পর্যন্ত প্রায় ৩২ কোটি টাকা প্রদান করা হয়েছে। এই সরকার কওমি মাদ্রাসকে স্বীকৃতি দিয়েছে। এই সনদপত্র দিয়ে বিভিন্ন চাকুরিতে নিয়োগ দেওয়া হচ্ছে। তিনি বলেন, সরকার প্রতিটি জেলা ও উপজেলায় একটি করে ৫৬০ টি মডেল মসজিদ নির্মাণ প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। আলেম-ওলামা, ইমাম-মোয়াজ্জিনরা সমাজের নেতা হিসেবে সন্ত্রাস ও জঙ্গিতৎপরতা রোধে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারেন।

খুলনা বিভাগীয় ইসলামিক ফাউন্ডেশনের পরিচালক শাহীন বিন জামানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন খুলনার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (এলএ) মোঃ ইকবাল হোসেন।

পরে জেলা প্রশাসক মহানগরসহ নয়টি খুলনার উপজেলার প্রায় ৯১ জন ইমাম এবং মুয়াজ্জিনদের মঝে পাঁচ হাজার টাকা করে চার লাখ ৫৫ হাজার টাকার চেক বিতরণ করেন।