শুক্রবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২৩, ০৩:২৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
বিএনপিকে রাজপথে শক্ত হাতে মোকাবেলা করা হবে লেখাপড়ার সাথে খেলাধুলা ও সাংস্কৃতিক চর্চা একান্ত প্রয়োজন -সিটি মেয়র কলাপাড়ায় ২০ কেজি মাংসসহ দুই হরিন শিকারী আটক তেরখাদায় জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান মফিজুর রহমানের শীতবস্ত্র বিতরণ শীতার্ত মানুষের পাশে দাঁড়ানোর আহবান: তেরখাদায় এমপি আব্দুস সালাম মূর্শেদী মুক্তিযুদ্ধ ভিত্তিক স্থাপনা নির্মাণে প্রধান শিক্ষকের চক্রান্ত ! চট্টগ্রামের হটহাজারীতে মন্দিরে হামলা ও ভাংচুর মামলার আসামীর কারাগারে মৃত্যু পতাকাসহ পাকিস্তান দলকে দেশে ফেরত পাঠানো উচিত : তথ্যপ্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ ভবদহের স্থায়ী জলাবদ্ধতা নিরসনে ভুক্তভোগীদের অবস্থান কর্মসূচি পালন করোনাকালীন এক লাখ ৩৫ হাজার শ্রমিককে চিকিৎসা সেবা দিয়েছে শ্রম কল্যাণ কেন্দ্র

মাদক ক্যান্সারের চেয়েও ভয়ংকর; শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী

সংবাদদাতার নাম :
  • প্রকাশিত সময় রবিবার, ১৭ ফেব্রুয়ারী, ২০১৯
  • ৪৮৬ পড়েছেন

তথ্যবিবরণী :
শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী বেগম মন্নুজান সুফিয়ান বলেন, মাদক ক্যান্সারের চেয়েও ভয়ংকর। ক্যান্সারে আক্রান্ত ব্যক্তি একা মারা যায় কিন্তু মাদক পুরো সমাজকে ধ্বংস করে দেয়।

তিনি রবিবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে খুলনা জেলা উন্নয়ন সমন্বয় কমিটির সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন। জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেনের সভাপতিত্বে তাঁর সম্মেলনকক্ষে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

শ্রম প্রতিমন্ত্রী বলেন, সরকার মাদক, দুর্নীতি ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স ঘোষণা করেছে। মাদক ব্যবসার সাথে জড়িত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে সর্ব্বোচ শাস্তি মৃত্যুদন্ডের বিধান রেখে আইন করা হয়েছে। মাদকের সাথে সংশ্লিষ্ট কেউ আর রেহাই পাবে না।

সরকারের সকল উন্নয়ন কর্মকান্ড আন্তরিকতার সাথে বাস্তবায়নের আহবান জানিয়ে মন্নুজান সুফিয়ান বলেন, আমরা প্রত্যেকে যার যার অবস্থান থেকে নীবিড়ভাবে আমাদের দায়িত্ব পালন করলেই ২০৪১ সালের মধ্যে এদেশকে উন্নত দেশে পরিণত করা সম্ভব হবে। তিনি উন্নয়ন কর্মকান্ড সঠিকভাবে সমন্বয়ের জন্য যথাযথ কর্মকর্তাকে নিয়মিতভাবে মাসিক উন্নয়ন সমন্বয় সভায় অংশগ্রহণের আহবান জানান।

এসময় প্রতিমন্ত্রী পাটকল শ্রমিকদের জন্যও নূন্যতম মজুরী বাস্তবায়নের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেন।
সভাপতি জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেন বলেন, খুলনায় সার্বিক উন্নয়নের জন্য সমন্বিত উন্নয়ন পরিকল্পনা গ্রহণ করার উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। প্রতিটি দপ্তরের কাছ থেকে উন্নয়ন পরিকল্পনা গ্রহণ করে তা সমন্বিত আকারে সরকারের কাছে পেশ করা হবে। তিনি সকল উন্নয়ন পরিকল্পনা সরকারের নির্বাচনী ইশতেহার এবং টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রার আলোকে গ্রহণ করার আহবান জানান।

সভায় প্রধানমন্ত্রীর অগ্রাধিকার প্রকল্পসহ অন্যান্য উন্নয়ন প্রকল্প নিয়ে আলোচনা করা হয়। সভায় জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা, সিভিল সার্জন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক), উপজেলা চেয়ারম্যান, ইউএনওসহ কমিটির অন্যান্য সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদটি শেয়ার করার জন্য অনুরোধ করা হলো

এ ধরনের আরো সংবাদ
© All rights reserved by www.banglardinkal.com (Established in 2017)
Hwowlljksf788wf-Iu