শুক্রবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২৩, ১১:৪২ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
বিএনপিকে রাজপথে শক্ত হাতে মোকাবেলা করা হবে লেখাপড়ার সাথে খেলাধুলা ও সাংস্কৃতিক চর্চা একান্ত প্রয়োজন -সিটি মেয়র কলাপাড়ায় ২০ কেজি মাংসসহ দুই হরিন শিকারী আটক তেরখাদায় জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান মফিজুর রহমানের শীতবস্ত্র বিতরণ শীতার্ত মানুষের পাশে দাঁড়ানোর আহবান: তেরখাদায় এমপি আব্দুস সালাম মূর্শেদী মুক্তিযুদ্ধ ভিত্তিক স্থাপনা নির্মাণে প্রধান শিক্ষকের চক্রান্ত ! চট্টগ্রামের হটহাজারীতে মন্দিরে হামলা ও ভাংচুর মামলার আসামীর কারাগারে মৃত্যু পতাকাসহ পাকিস্তান দলকে দেশে ফেরত পাঠানো উচিত : তথ্যপ্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ ভবদহের স্থায়ী জলাবদ্ধতা নিরসনে ভুক্তভোগীদের অবস্থান কর্মসূচি পালন করোনাকালীন এক লাখ ৩৫ হাজার শ্রমিককে চিকিৎসা সেবা দিয়েছে শ্রম কল্যাণ কেন্দ্র

দুপুরে বাঁধ ভেঙে গ্রাম প্লাবিত অতঃপর ৫ ঘন্টার স্বেচ্ছাশ্রমে মেরামত

সংবাদদাতার নাম :
  • প্রকাশিত সময় শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল, ২০১৯
  • ৮০৭ পড়েছেন

প্রতিনিধিদের পাঠানো সংবাদ :
খুলনার দাকোপ উপজেলার বানিশান্তা ইউনিয়নে শুক্রবার দুপুরে পশুর নদীর প্রবল জোয়ারে বেড়িবাঁধ ভেঙে যাওয়ায় বানিশান্তা গ্রামের প্রায় ২৫০ ঘরবাড়ি প্লাবিত হয়। ভেসে যায় বাজারের দোকানের মালামাল ও মাছের ঘের। অতঃপর বিকাল ৪ টা থেকে প্রায় ২০০ গ্রামবাসীর ৫ ঘন্টার স্বেচ্ছাশ্রমে বাঁধ মেরামত করা হয়।

ক্ষতিগ্রস্ত এলাকাটি পানি উন্নয়ন বোর্ডের ৩৩ নম্বর পোল্ডারের আওতায়। বিশ্বব্যাংকের অর্থায়নে ওই পোল্ডারে বেড়িবাঁধ ও অভ্যন্তরীণ নিষ্কাশনব্যবস্থার উন্নয়নে উপকূলীয় এলাকায় উন্নয়ন প্রকল্পের (সিইআইপি-১) কাজ চলছে। চায়না ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান ‘দ্য ফার্ষ্ট ইঞ্জিনিয়ারিং ব্যুরো অব হেনান ওয়াটার কনজারভেন্সি’ নামের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান ওই প্রকল্পের কাজগুলো করছে। তবে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে সংস্কার কাজ ধীরগতি ও তাদের গাফিলতির কারণে বেড়িবাঁধ ভেঙে গ্রামটি প্লাবিত হয়েছে।

বানিশান্তা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান সুদেব রায় মুঠোফোনে বলেন, পশুর নদীর পাড়ে বানিশান্তা বাজার বেড়িবাঁধের প্রায় ৩০০ মিটার এলাকা দীর্ঘদিন ধরে ঝঁকিপূর্ণ ছিল। ১৯ এপ্রিল দুপুর ১২ টার দিকে প্রবল জোয়ারের তোড়ে প্রায় ৩০ফুট রাস্তা ভেঙে ৫ নং ওয়ার্ডের প্রায় ২৫০ ঘরবাড়ি প্লাবিত হয়, ভেসে যায় অসংখ্য পুকুরের মাছ ও ক্ষেতের ফসল। তিনি বলেন, জোয়ারের পানিতে বেড়িবাঁধ ভেঙে বাজারসহ গ্রামটি প্লাবিত হয়েছে। নদীতে ভাটা এলে বিকাল ৪ টার পর থেকে পানি নামার সঙ্গে সঙ্গে বাঁধ দেওয়ার কাজ চলেছে। প্রায় ২০০ গ্রামবাসীর স্বেচ্ছা শ্রমে ও ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় রাত ৯টার দিকে বাঁধ মেরামত করা সম্ভব হয়েছে। রাতে সেখানে কিছু শ্রমিক দিয়ে পাহারার ব্যবস্থা করেছি। ভোর বেলা থেকে আবার কাজ করবো। তিনি আরও জানান আগামিকাল মাননীয় এমপি শ্রী পঞ্চানন বিশ্বাস মহাদয় আসবেন ক্ষতিগ্রস্থ এলাকা পরিদর্শনের জন্য।

বিকেলে ক্ষতিগ্রস্থ এলাকাটি পরিদর্শন করেন উপজেলা আ’লীগ সভাপতি শেখ আবুল হোসেন, উপজেলা আ’লীগ সাধারণ সম্পাদক ও ইউপি চেয়ারম্যান বিনয় কৃষ্ণ রায়, নব নির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান মুনসুর আলী খান, সাবেক সাংসদ ননী গোপাল মণ্ডল, চালনা পৌরসভার মেয়র সনত বিশ্বাস, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আবদুল ওদুদ, থানা অফিসার ইনচার্জ মো. মোকাররম হোসেন, জেলা পরিষদ সদস্য রজত কান্তি শীল, ইউপি চেয়ারম্যান সরোজিৎ রায়, আ’লীগ নেতা পরিমল রপ্তান, যুব নেতা রতন মণ্ডল ইউপি সদস্য মো. ফিরোজ আলীসহ আরও অনেকে।

দাকোপ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শেখ আবুল হোসেন মুঠো ফোনে জানান, বানিশান্তায় বাঁধ ভেঙে যাওয়ার খবর শুনে তিনি সেখানে যান। তিনি আরও বলেন, ওই জায়গাটি আগে থেকেই ঝুঁকিপূর্ণ ছিল এ বাঁধ সংস্কারের জন্য উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য মুঠোফোনে বলা হয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করার জন্য অনুরোধ করা হলো

এ ধরনের আরো সংবাদ
© All rights reserved by www.banglardinkal.com (Established in 2017)
Hwowlljksf788wf-Iu