শনিবার, ১৩ অগাস্ট ২০২২, ০৫:৩৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
খুলনার বৃক্ষমেলায় প্রায় ৪৯ লাখ টাকার  চারা বিক্রি রূপসায় চিংড়ির পঁচা মাথার গন্ধে মারাত্নক পরিবেশ দুষন, জনজীবন অতিষ্ঠ অবৈধ সরকার অর্থনীতিসহ সার্বিক পরিস্থিতিতে চলতি মাসও টিকে থাকতে পারবে না : বিএনপি রামপাল বিদ্যুৎ কেন্দ্রের চুরি হওয়া মালামালসহ ০৪ চোর আটক রূপসায় চিংড়িতে অপদ্রব্য পুশ করার সময় হাতেনাতে আটক, ৭জনের কারাদন্ড জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে নগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের বিশেষ বর্ধিত সভা বিশ্বকে বাংলাদেশের সক্ষমতা দেখিয়ে দিয়েছেন শেখ হাসিনা : সিটি মেয়র শিক্ষকদের পাণ্ডিত্য, গবেষণা ও ব্যক্তিত্ব শিক্ষার্থীরা অনুসরণ করে কুয়েট ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. কাজী সাজ্জাদ হোসেন মেয়াদকাল শেষ রামপাল কলেজ শিক্ষকের অনিয়মের সংবাদ প্রকাশের জেরে সাংবাদিককে হুমকি, থানায় জিডি

ঘুর্ণিঝড় ফণী পরবর্তী খুলনা জেলা প্রশাসনের সংবাদ সম্মেলন

সংবাদদাতার নাম :
  • প্রকাশিত সময় সোমবার, ৬ মে, ২০১৯
  • ৪৩০ পড়েছেন

নিজস্ব প্রতিবেদক:

খুলনা জেলায় ঘুণিঝড় ফণী এর ক্ষয়ক্ষতি সরেজমিনে নিরুপন ও ক্ষতিগ্রস্থদের পুনর্বাসন কার্যক্রম সম্পর্কে খুলনা জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেন ৬মে(সোমবার) সন্ধ্যায় সার্কিট হাউজে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন।

সংবাদ সম্মেলনে জেলা প্রশাসক জানান, খুলনা জেলার কয়রা, দাকোপ, বটিয়াঘাটা, পাইকগাছা ও রূপসা উপজেলার মোট ২১টি ইউনিয়নে ফণীর প্রভাব পড়ে। ঝড়ে আনুমানিক দূর্গত মানুষের সংখ্যা ৪০ হাজার, ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের সংখ্যা আনুমানিক ১২ হাজার ৮১০টি। ঝড়ে বিধ্বস্থ ঘরবাড়ীর সংখ্যা আনুমানিক ছয় হাজার ৫৬৭টি। ঝড়ের সময় আশ্রয় কেন্দ্রগুলোতে মোট ২ লাখ ৫২ হাজার মানুষ আশ্রয় গ্রহণ করেন এবং ঝড় পরবর্তী সবাই তাদের বসত বাড়িতে ফিরে যায়। খুলনায় ঘুর্ণিঝড় ফণীতে কোন মানুষ মৃত্যু বা নিখোঁজ হয় নাই । তবে দাকোপ উপজেলার একটি আশ্রয় কেন্দ্রে একজন গর্ভবতী মা একটি কন্যা সন্তান প্রসব করেন এবং সেই কন্যা সন্তানের নাম ফণী বেগম রাখা হয়। ফণী বেগমের বাবা-মায়ের স্থায়ী কোন বসত বাড়ি না থাকায় সেই পরিবারকে পাকা ঘর করে দেয়া হবে।

জেলা প্রশাসক আরও জানান, ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্থ মানুষের সাহায্য ও পুনর্বাসনের জন্য এ পর্যন্ত মোট ১০ লাখ টাকা, ৩শ মেট্রিক টন চাল, এক হাজার বান্ডেল ঢেউ টিন, শুকনো খাবার বরাদ্দ পাওয়া গেছে। যা দুর্যোগ কবলিত মানুষের মধ্যে বিতরণ চলমান আছে।

সংবাদ সম্মেলনে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) জিয়াউর রহমান, জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা আজিজুল হক জোয়ার্দ্দার এবং খুলনা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক সাহেব আলী সহ স্থানীয় গণমাধ্যম কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদটি শেয়ার করার জন্য অনুরোধ করা হলো

এ ধরনের আরো সংবাদ

© All rights reserved by www.banglardinkal.com (Established in 2017)

Hwowlljksf788wf-Iu