মঙ্গলবার, ১৬ অগাস্ট ২০২২, ১১:০৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
কেসিসি’র উদ্যোগে জাতীয় শোক দিবসে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল জীবিত বঙ্গবন্ধুর চেয়ে মৃত বঙ্গবন্ধু বেশি শক্তিশালী : সিটি মেয়র জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুসহ শহীদদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা তেরখাদায় অস্ত্রসহ একাধিক মামলার আসামি আটক তেরখাদায় নানা কর্মসূচির মাধ্যমে জাতীয় শোক দিবস পালন জাতীয় শোক দিবসের বিশেষ নিবন্ধ : ১৫ আগষ্ট বাঙালি জাতির একটি কলঙ্কিত ইতিহাস যশোরে ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির উদ্যোগে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত সাভারে সংবাদ প্রকাশের জেরে সাংবাদিকের উপর হামলা, হত্যার চেষ্টা শোকাবহ আগস্টে অপশক্তি ও অপপ্রচারের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর আহ্বান : এমপি সালাম মূর্শেদী জাতীয় শোক দিবসে বিশেষ প্রতিবেদন : সেই শিশু আজ জগৎ জোড়া

খুলনা জেলার শতভাগ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে হাইজিন কর্ণার স্থাপন প্রকল্পের উদ্বোধন

সংবাদদাতার নাম :
  • প্রকাশিত সময় শনিবার, ৯ মার্চ, ২০১৯
  • ৫২৫ পড়েছেন

তথ্যবিবরণী :

প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ উদ্যোগ-৩ এবং সহস্রাব্দ উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) অর্জনের লক্ষ্যে স্কুল ছাত্রীদের বয়ঃসন্ধিকালীন প্রজনন স্বাস্থ্য সুরক্ষার উদ্দেশ্যে খুলনা জেলার সকল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে হাইজিন কর্ণার স্থাপন প্রকল্পের কাজ শুরু হয়েছে।

শনিবার (৯ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে খুলনা সার্কিট হাউস সম্মেলনকক্ষে এই প্রকল্পের উদ্বোধন করেন খুলনা-২ আসনের সংসদ সদস্য সেখ সালাহউদ্দিন। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক।

এমপি সেখ সালাহউদ্দিন তাঁর উদ্বোধনী বক্তৃতায় বলেন, সুস্থ জাতি গঠনের জন্য সুস্থ মা দরকার। সুস্থ মা পেতে হলে স্কুল ছাত্রীদের বয়ঃসন্ধিকালীন প্রজনন স্বাস্থ্য নিশ্চিত করার কোন বিকল্প নেই। বিদ্যমান বাজেটের মধ্য থেকেই এ ধরনের হাইজিন কর্ণার বস্তাবায়ন কিশোরী শিক্ষার্থীদের পিরিয়ডকালীন সময়ে স্কুলে অনুপস্থিতির হার হ্রাস করবে।

প্রধান অতিথি সিটি মেয়র বলেন, এ ধরনের উদ্যোগ আরো আগেই গ্রহণ করা প্রয়োজন ছিলো। দেরিতে হলেও এধরনের প্রকল্প গ্রহণের জন্য জেলা প্রশাসনকে ধন্যবাদ জানান। একই সাথে আগামীতে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নতুন ভবন নির্মাণের সময় নকশাতেই মেয়েদের জন্য হাইজিন কর্ণার রাখার নির্দেশ দেন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে জানানো হয়, খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মধ্যে অবস্থিত ১০৩টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে আগামী ছয় মাসের মধ্যেই এই হাইজিন কর্ণার নির্মাণের কাজ সম্পন্ন করা হবে। আর খুলনা জেলার মোট ৪০৩টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে শেষ হবে আগামী এক বছরের মধ্যে। এই প্রকল্পের আওতায় প্রতিটি বিদ্যালয়ে স্বাস্থ্য সম্মত টয়লেট স্থাপন, পিরিয়ডকালীন উপকরণ বিতরণ, বিন রাখা এবং পর্যাপ্ত পানির ব্যবস্থা করা, জড়তা দুর করে হাইজন কর্ণার ব্যবহারে সকল শিক্ষার্থীকে সচেতন ও উৎসাহী করে তোলাসহ নানা পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।

জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেনের সভাপতিত্বে এই উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার মোহাম্মদ ফারুক হোসেন, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শেখ হারুনুর রশীদ, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা খুলনা’র উপপরিচালক নিভা রানী পাঠক, খুলনা জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভানেত্রী জাহানারা শহীদ, মুক্তিযোদ্ধা আলমগীর কবির, প্রেস ক্লাবের সভাপতি এসএম হাবিব প্রমুখ। অনুষ্ঠানে খুলনা জেলার বিভিন্ন মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধান শিক্ষকগণ অংশগ্রহণ করেন।

সংবাদটি শেয়ার করার জন্য অনুরোধ করা হলো

এ ধরনের আরো সংবাদ

© All rights reserved by www.banglardinkal.com (Established in 2017)

Hwowlljksf788wf-Iu