শুক্রবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২৩, ০৩:৩১ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
বিএনপিকে রাজপথে শক্ত হাতে মোকাবেলা করা হবে লেখাপড়ার সাথে খেলাধুলা ও সাংস্কৃতিক চর্চা একান্ত প্রয়োজন -সিটি মেয়র কলাপাড়ায় ২০ কেজি মাংসসহ দুই হরিন শিকারী আটক তেরখাদায় জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান মফিজুর রহমানের শীতবস্ত্র বিতরণ শীতার্ত মানুষের পাশে দাঁড়ানোর আহবান: তেরখাদায় এমপি আব্দুস সালাম মূর্শেদী মুক্তিযুদ্ধ ভিত্তিক স্থাপনা নির্মাণে প্রধান শিক্ষকের চক্রান্ত ! চট্টগ্রামের হটহাজারীতে মন্দিরে হামলা ও ভাংচুর মামলার আসামীর কারাগারে মৃত্যু পতাকাসহ পাকিস্তান দলকে দেশে ফেরত পাঠানো উচিত : তথ্যপ্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ ভবদহের স্থায়ী জলাবদ্ধতা নিরসনে ভুক্তভোগীদের অবস্থান কর্মসূচি পালন করোনাকালীন এক লাখ ৩৫ হাজার শ্রমিককে চিকিৎসা সেবা দিয়েছে শ্রম কল্যাণ কেন্দ্র

শিক্ষার্থীর শারীরিক গঠন ও বিকাশের জন্য খেলাধুলার প্রয়োজন -শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী

সংবাদদাতার নাম :
  • প্রকাশিত সময় শনিবার, ১১ মে, ২০১৯
  • ৪৮৫ পড়েছেন

তথ্যবিবরণী : শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী বেগম মন্নুজান সুফিয়ান বলেছেন, পড়াশুনার পাশাপাশি শিক্ষার্থীর শারীরিক গঠন ও বিকাশের জন্য খেলাধুলার প্রয়োজন। খেলাধুলার মাধ্যমে একটি দেশ বিশ্বের কাছে পরিচিত হয়ে উঠতে পারে। আন্তর্জাতিকভাবে খেলাধুলায় আমাদের ছেলেমেয়েরা সুনামের সাথে কৃতিত্ব অর্জন করছে।

তিনি ১১মে (শনিবার) বিকালে খুলনার দৌলতপুর সরকারি বিএল কলেজ আন্ত:বিভাগ ক্রিকেট টুর্নামেন্ট এর পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, সরকার শিক্ষার পাশাপাশি খেলাধুলার প্রতি বেশ নজর দিচ্ছে। সকল শিক্ষার্থীকে সুশিক্ষায় শিক্ষিত হতে হবে। শিক্ষার মান উন্নয়নে শিক্ষকদেরও দায়বদ্ধতা রয়েছে। শিক্ষার্থীকে সঠিক শিক্ষা গ্রহণ করতে হবে। মাদকের বিরুদ্ধে সরকার জিরো টলারেন্স ঘোষণা করেছে। সরকার মাদক, সন্ত্রাস ও দুর্নীতিমুক্ত বাংলাদেশ গড়ার চেষ্টা করছে। তিনি আরও বলেন, জতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান দেশের অসহায় মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনের জন্য কাজ করে গেছেন। বঙ্গবন্ধু ক্ষুধা-দারিদ্রমুক্ত বাংলাদেশ গড়ে তোলার স্বপ্ন দেখে ছিলেন। তাঁর স্বপ্ন বাস্তবায়ন করতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কাজ করে যাচ্ছেন। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুসহ পরিবারকে হত্যার মধ্যদিয়ে মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ধ্বংসের চেষ্টা করা হয়েছিল। চক্রান্তকারীদের সেই চেষ্টা সফল হয়নি। মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস নতুন প্রজন্ম আজ জানতে পারছে।

দৌলতপুর সরকারি বিএল কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর কেএম আলমগীর হোসেন পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন। এসময় কলেজের উপাধ্যক্ষ প্রফেসর শরীফ আতিকুজ্জামানসহ অন্যান্য শিক্ষক ও শিক্ষার্থী উপস্থিত ছিলেন। পরে প্রতিমন্ত্রী বিজয়ী এবং রানার আপ দলের মাঝে ট্রফি বিতরণ করেন।

সন্ধ্যায় প্রতিমন্ত্রী দৌলতপুর থানা আওয়ামী লীগের নতুন কমিটির পরিচিত সভা এবং ইফতার মাহফিলে প্রধান অতিথি হিসেবে যোগদান করেন।

সংবাদটি শেয়ার করার জন্য অনুরোধ করা হলো

এ ধরনের আরো সংবাদ
© All rights reserved by www.banglardinkal.com (Established in 2017)
Hwowlljksf788wf-Iu