মঙ্গলবার, ০৯ অগাস্ট ২০২২, ০৫:৩৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম
বিশেষ নিবন্ধ : শ্রাবনের চরিত্রহনণ বঙ্গবন্ধু হয়ে ওঠার পেছনের অনুপ্রেরণা বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব বাংলাদেশ-ভারত আমদানি-রফতানি চুক্তির প্রথম ট্রায়ালের পণ্য মোংলায় খালাস : মেঘালয় ও আসামের উদ্দেশ্যে যাত্রা নির্বাচন আসলেই এদেশের কিছু ধান্দাবাজ একত্রিত হয় : তালুকদার খালেক দেশে রিজার্ভ নেই-একদিন দেখবেন শেখ হাসিনাও মসনদে নেই : বিএনপি বঙ্গমাতার গুণাবলী ধারণ করে মেয়েদের এগিয়ে যেতে হবে : খুবি উপাচার্য বঙ্গবন্ধুর বাঙালির মুক্তির মহানায়ক হয়ে ওঠার পেছনে প্রেরণা ছিলেন  বঙ্গমাতা : সিটি মেয়র বঙ্গবন্ধু ছিলেন জাতির কান্ডারি ও রাজনীতির কবি : এসডিএফ চেয়ারম্যান আব্দুস সামাদ বাংলাদেশ-ভারত ট্রানজিট চুক্তি বাস্তবায়নে ভারতের ট্রায়াল জাহাজ মোংলা বন্দরে’ খুলনায় বঙ্গমাতা ফজিলাতুন নেছা মুজিবের জন্মবার্ষিকীতে দু:স্থ্যদের মাঝে সেলাই মেশিন বিতরন

মৎস্য ও প্রাণী সম্পদ প্রতিমন্ত্রীর সাথে ফোয়াবের মতবিনিময়

সংবাদদাতার নাম :
  • প্রকাশিত সময় রবিবার, ৭ জুলাই, ২০১৯
  • ৮৭৭ পড়েছেন
মৎস্য ও প্রাণী সম্পদ প্রতিমন্ত্রী আশরাফ আলী খান খসরু এমপি’কে (ফোয়াব) প্রকাশিত বই প্রদান করছেন নেতৃবৃন্দরা।

খবর বিজ্ঞপ্তি : বাংলাদেশ সচিবালয়ে গত (০২ জুলাই) মৎস্য ও প্রাণী সম্পদ প্রতিমন্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা আশরাফ আলী খান খসরু এমপি’র অফিস কক্ষে বাংলাদেশের অ্যাকুয়া কালচারের বাণিজ্যিক সংগঠন ফিস ফার্ম ওনার্স এসোসিয়েশন, বাংলাদেশ(ফোয়াব) সভাপতি মোল্লা সামছুর রহমান (শাহীন) এর নেতৃত্বে ৯ সদস্য বিশিষ্ট একটি প্রতিনিধি দল মতবিনিময় করেন। এসময় নেতৃবৃন্দরা অ্যাকুয়া কালচার শিল্পের উন্নয়নে ৬ দফা সুপারিশ নামা পেশ করেন।

ফোয়াব এর পক্ষ থেকে মস্ত্রী মহোদয়কে নিন্মলিখিত ৬ দফা সুপারিশ নামা পেশ করা হয়:
১। বাংলাদেশের চিংড়ি শিল্পের উদ্ভূত সমস্যা নিরসনের সুপারিশ প্রণয়নের লক্ষে চিংড়ি/মৎস্য বিশেষজ্ঞ, চাষী সহ সংশ্লিষ্ট সকলের অংশগ্রহণের মাধ্যমে একটি জাতীয় সেমিনার আয়োজন করা।

২। ‘ফোয়াব’ এর বিগত সময়ের আবেদন বিবেচনায় এনে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ এবং বিএফআরআই এর পরিচালনা পরিষদে ফোয়াব’কে অন্তর্ভূক্ত করণে প্রতিমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা।

৩। মাছ ও চিংড়ি চাষীদের খামারের রেজিষ্ট্রেশন প্রদানের ক্ষেত্রে ট্রেসিবিলিটি সিস্টেমকে আরও দৃশ্যমান করার জন্য এবং গুণগত মানসম্পন্ন চিংড়ি উৎপাদন ও ভ্যালুচেন উন্নয়নে ‘ফোয়াব’ এর সহযোগীতা প্রদানের সুযোগ সৃষ্টি করণ।

৪। মৎস্য অধিদপ্তর কতৃক বাস্তবায়নাধীন সাসটেইনেবল কোষ্টাল মেরিন ফিশারিজ প্রজেক্টে ও ক্লাষ্টার ফার্মিং কর্মসূচি বাস্তবায়নে ফিস ফার্ম ওনার্স এসোসিয়েশন, বাংলাদেশ (ফোয়াব) কে অন্তর্ভূক্ত করণ।

৫। নেদারল্যান্ড থেকে আগত পাম ও ফোয়াব বিশেষজ্ঞ সমন্বয়ে নিরাপদ চিংড়ি উৎপাদন বৃদ্ধির স্বার্থে কক্সবাজার ও খুলনায় অবস্থানকালে মৎস্য ও প্রাণী সম্পদ মন্ত্রনালয় কতৃক সার্বিক সহযোগিতা এবং অভিজ্ঞতা ভ্রমণ শেষে প্রতিমন্ত্রী মহোদয়ের সাথে সাক্ষাতের ব্যবস্থা করণ।

৬। মৎস্য সম্পর্কিত আন্ত:মন্ত্রনালয় সভা নিয়মিত করণের ব্যবস্থা গ্রহণ ও সকল জাতীয় ও স্থানীয় কমিটিতে একমাত্র বাণিজ্যিক চাষী সংগঠন (ফোয়াব) কে অন্তর্ভূক্ত করণের ব্যবস্থা করা।

প্রতিমন্ত্রীর সাথে মতবিনিময়কালে উপস্থিত ছিলেন ফোয়াবের চীপ টেকনিক্যাল এ্যাডভাইজার ড.নিত্যানন্দ দাস, টেকনিক্যাল এ্যাডভাইজার প্রফুল্ল কুমার সরকার, টেকনিক্যাল এ্যাডভাইজার মন্মথ নাথ সরকার, কার্য নির্বাহী সদস্য ড.বায়োজিদ মোড়ল, ফারূখ হোসেন, ঝালকাঠি আঞ্চলিক কমিটির আহবায়ক মনিরুজ্জামান তোফায়েল, সদস্য ব্যারিষ্টার মো.মহিবুল্লা, আমানুল্লা আলামিন প্রমূখ।

এ সময় মস্ত্রী মহোদয় ফোয়াব নেতৃবৃন্দের কথা মনোযোগ দিয়ে শোনেন এবং সমাধানের আশ্বাস দেন। মতবিনিময় শেষে নয় সদস্য বিশিষ্ট প্রতিনিধি দল (ফোয়াব) প্রকাশিত ‘‘দৈনন্দিন খাদ্যে মাছের পুষ্টিগুণ’’ বিষয়ক সাস্থ্য সহায়ক ও তথ্য ভিত্তিক বই তাঁর হাতে তুলে দেন।

সংবাদটি শেয়ার করার জন্য অনুরোধ করা হলো

এ ধরনের আরো সংবাদ

© All rights reserved by www.banglardinkal.com (Established in 2017)

Hwowlljksf788wf-Iu