ঢাকা ০৭:৪২ অপরাহ্ন, বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

পাইকগাছায় এক বৃদ্ধাকে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতন ও বসত বাড়ি ভাংচুর; ৪টি মটর সাইকেল ও দা-কুড়াল জব্দ; আটক ৪

তৃপ্তি সেন, পাইকগাছা :
খুলনার পাইকগাছায় এক বৃদ্ধাকে মধ্যযুগীয় কায়দায় বেঁধে নির্যাতন চালিয়ে তার বসত বাড়ি ভাংচুর করেছে দুর্বৃত্তরা। এ সময় তার কলেজ পড়ুয়া মেয়ের বইখাতা পুকুরের পানিতে ফেলে দিয়ে বাড়ির সব কিছু তছনছ করে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি করেছে দুবৃর্ত্তরা। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ৪টি মটর সাইকেল ও ঘটনায় ব্যবহৃত দা-কুড়াল জব্দ করে ৪ জনকে আটক করেছে।

এলাকবাসী ও থানা পুলিশ সুত্রে জানা গেছে, উপজেলার সিলেমানপুর গ্রামের বসত বাড়ীর জায়গা জমি নিয়ে একই এলাকার সখিনা বেগমের সাথে তার চাচাতো ভাই আব্দুল গাজীর দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছে। এ নিয়ে অনেক বার শালিশী বৈঠক অনুষ্ঠিত হলেও কোন সমাধান হয়নি। বিরোধের এক পর্যায়ে বৃদ্ধা সখিনার ৩ ছেলে ইট ভাটার শ্রমিক হিসেবে এলাকার বাহিরে অবস্থান করছিল। এ সুযোগে শনিবার (২৩ মার্চ) সকালে আব্দুল গাজীর ছেলে ইউসুপ-ইউনুছের নেতৃত্বে বহিরাগতরা রান্না করা অবস্থায় সখিনাকে বেঁধে ফেলে ব্যাপক তান্ডব চালিয়ে বসত ঘর ভাংচুর করে ঘরের কাঁথা, কাপড়-চোপড়, ভাতের হাড়ী ও পুতনি এইচএসসি পরীক্ষার্থী কেয়ার ব্যবহৃত বই-খাতা পুকুরে ফেলে দেয়।

আহত সখিনা অভিযোগ করেন তার চাচাতো ভাই আব্দুল গাজীর ছেলের বৌ মঞ্জুয়ারা, হাফিজা তাঁর হাত-বেঁধে তাদের স্বামী ও বহিরাগত লোকজন মারপিট করে বাড়িতে ব্যাপক ভাংচুর করে ক্ষয়-ক্ষতি করে। দুর্বৃত্তরা এ সময় এইচ এসসি পরীক্ষার্থী কেয়াকেও মারপিট করে আহত করে। খবর পেয়ে থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই আবু সাঈদ, এসআই প্রভাষ মিত্র ও লিটন অধিকারী ঘটনাস্থলে পৌছে বহিরাগতদের ৪ টি মটর সাইকেল ও ঘটনায় ব্যবহৃত দা-কুড়াল উদ্ধার করে ঘটনাস্থল থেকে ইউসুফ গাজী, মোস্তফা, মঞ্জুয়ারা ও হাফিজাকে আটক করেছে।

থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ এমদাদুল হক শেখ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, খবর পেয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছিয়ে তাৎক্ষণিকভাবে ৪জনকে আটক করে ৪টি মটর সাইকেল ও ঘটনায় ব্যবহৃত দা-কুড়াল জব্দ করা হয়েছে।

এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের পক্ষ থেকে মামলার প্রস্তুতি চলছিল।

Tag :
About Author Information

বাংলার দিনকাল

Editor and publisher
জনপ্রিয় সংবাদ

খুবিতে ‘জাতীয় শুদ্ধাচার কৌশল’ শীর্ষক প্রশিক্ষণ উদ্বোধন

পাইকগাছায় এক বৃদ্ধাকে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতন ও বসত বাড়ি ভাংচুর; ৪টি মটর সাইকেল ও দা-কুড়াল জব্দ; আটক ৪

প্রকাশিত সময় ০৭:০৮:২৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৩ মার্চ ২০১৯

তৃপ্তি সেন, পাইকগাছা :
খুলনার পাইকগাছায় এক বৃদ্ধাকে মধ্যযুগীয় কায়দায় বেঁধে নির্যাতন চালিয়ে তার বসত বাড়ি ভাংচুর করেছে দুর্বৃত্তরা। এ সময় তার কলেজ পড়ুয়া মেয়ের বইখাতা পুকুরের পানিতে ফেলে দিয়ে বাড়ির সব কিছু তছনছ করে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি করেছে দুবৃর্ত্তরা। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ৪টি মটর সাইকেল ও ঘটনায় ব্যবহৃত দা-কুড়াল জব্দ করে ৪ জনকে আটক করেছে।

এলাকবাসী ও থানা পুলিশ সুত্রে জানা গেছে, উপজেলার সিলেমানপুর গ্রামের বসত বাড়ীর জায়গা জমি নিয়ে একই এলাকার সখিনা বেগমের সাথে তার চাচাতো ভাই আব্দুল গাজীর দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছে। এ নিয়ে অনেক বার শালিশী বৈঠক অনুষ্ঠিত হলেও কোন সমাধান হয়নি। বিরোধের এক পর্যায়ে বৃদ্ধা সখিনার ৩ ছেলে ইট ভাটার শ্রমিক হিসেবে এলাকার বাহিরে অবস্থান করছিল। এ সুযোগে শনিবার (২৩ মার্চ) সকালে আব্দুল গাজীর ছেলে ইউসুপ-ইউনুছের নেতৃত্বে বহিরাগতরা রান্না করা অবস্থায় সখিনাকে বেঁধে ফেলে ব্যাপক তান্ডব চালিয়ে বসত ঘর ভাংচুর করে ঘরের কাঁথা, কাপড়-চোপড়, ভাতের হাড়ী ও পুতনি এইচএসসি পরীক্ষার্থী কেয়ার ব্যবহৃত বই-খাতা পুকুরে ফেলে দেয়।

আহত সখিনা অভিযোগ করেন তার চাচাতো ভাই আব্দুল গাজীর ছেলের বৌ মঞ্জুয়ারা, হাফিজা তাঁর হাত-বেঁধে তাদের স্বামী ও বহিরাগত লোকজন মারপিট করে বাড়িতে ব্যাপক ভাংচুর করে ক্ষয়-ক্ষতি করে। দুর্বৃত্তরা এ সময় এইচ এসসি পরীক্ষার্থী কেয়াকেও মারপিট করে আহত করে। খবর পেয়ে থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই আবু সাঈদ, এসআই প্রভাষ মিত্র ও লিটন অধিকারী ঘটনাস্থলে পৌছে বহিরাগতদের ৪ টি মটর সাইকেল ও ঘটনায় ব্যবহৃত দা-কুড়াল উদ্ধার করে ঘটনাস্থল থেকে ইউসুফ গাজী, মোস্তফা, মঞ্জুয়ারা ও হাফিজাকে আটক করেছে।

থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ এমদাদুল হক শেখ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, খবর পেয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছিয়ে তাৎক্ষণিকভাবে ৪জনকে আটক করে ৪টি মটর সাইকেল ও ঘটনায় ব্যবহৃত দা-কুড়াল জব্দ করা হয়েছে।

এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের পক্ষ থেকে মামলার প্রস্তুতি চলছিল।