মঙ্গলবার, ১৬ অগাস্ট ২০২২, ১১:০২ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
জীবিত বঙ্গবন্ধুর চেয়ে মৃত বঙ্গবন্ধু বেশি শক্তিশালী : সিটি মেয়র জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুসহ শহীদদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা তেরখাদায় অস্ত্রসহ একাধিক মামলার আসামি আটক তেরখাদায় নানা কর্মসূচির মাধ্যমে জাতীয় শোক দিবস পালন জাতীয় শোক দিবসের বিশেষ নিবন্ধ : ১৫ আগষ্ট বাঙালি জাতির একটি কলঙ্কিত ইতিহাস যশোরে ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির উদ্যোগে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত সাভারে সংবাদ প্রকাশের জেরে সাংবাদিকের উপর হামলা, হত্যার চেষ্টা শোকাবহ আগস্টে অপশক্তি ও অপপ্রচারের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর আহ্বান : এমপি সালাম মূর্শেদী জাতীয় শোক দিবসে বিশেষ প্রতিবেদন : সেই শিশু আজ জগৎ জোড়া কয়রার দক্ষিণ বেদকাশীর রিংবাঁধ ভেঙ্গে এলাকা প্লাবিত, দূর্ভোগে হাজারো মানুষ

কয়রায় উপাধ্যক্ষ হত্যা মামলার চার্জশিট আদালতে দাখিল

সংবাদদাতার নাম :
  • প্রকাশিত সময় শনিবার, ৯ মার্চ, ২০১৯
  • ৫১১ পড়েছেন

কয়রা প্রতিনিধি :
কয়রা সিদ্দিকীয়া ফাজিল মাদরাসার সাবেক উপাধ্যক্ষ মাওঃ আব্দুল হাই শেখ হত্যা মামলার অভিযোগপত্র (চার্জশিট) অবশেষে আদালতে দাখিল করা হয়েছে। সিআইডি খুলনা মেট্রো (দক্ষিণ) পুলিশ পরিদর্শক (নিঃ) শেখ শাহাজাহান কর্তৃক গত ৩০/১/১৯ ইং তারিখ স্বাক্ষরিত ৭ পৃষ্ঠার অভিযোগপত্রটি সম্প্রতি উপজেলা সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে জমা দেয়া হয়েছে।

চার্জশিটে নিহত উপাধ্যক্ষের দ্বিতীয় স্ত্রী শাহানা সুলতানা বেবি (৪৬), তার পুত্র মোঃ মাসুম বিল্লাহ (২৪), খুলনার নিরালা বাগমারা এলাকার আব্দুর রহমানের পুত্র মোঃ ইমরান আলী মোল্লা (১৯) ও কয়রার গোলখালি গ্রামের সামাদ গাজীর পুত্র মোঃ শফিকুল (২২) এর নাম উল্লেখ রয়েছে। চ্যঞ্চল্যকর এ হত্যা মামলার বাদী নিহতের আপন ভাই মাওঃ মোঃ আব্দুস সাত্তার সহ ২৫ জন স্বাক্ষী দেখানো হয়েছে।

আদালতে দাখিলকৃত অভিযোগপত্রে জানা যায়, ২০১৭ সালের ১৩ জুলাই রাতে উপাধ্যক্ষ মাওঃ আব্দুল হাই শেখের গলাকাটা লাশ তার বসতঘরের উত্তর পাশে কবরস্থানের নিকট পুকুরে পাওয়া যায়। ভোর ৬টায় সময় কান্নাকাটির শব্দ শুনে নিহতের ভাই মামলার বাদী মাওঃ আব্দুস সাত্তার দ্রুত সেখানে গিয়ে দেখতে পায় তার ভাইয়ের লাশ স্ত্রী পুত্র স্বজনরা পুকুর থেকে তুলে বাড়ির ভেতরের বসতঘরে রাখে। সিআইডি’র তদন্তকারী কর্মকর্তা শেখ শাহাজাহান অভিযোগপত্রে উল্লেখ করেন প্রথম স্ত্রীর সন্তানদের সাথে জমি জায়গার বিরোধে উপাধ্যক্ষের দ্বিতীয় স্ত্রী পুত্রদের ঝগড়াঝাটির কারণে দ্বিতীয় স্ত্রী শাহানা সুলতানা বেবি, তার পুত্র মোঃ মাসুম বিল্লাহ, খুলনার নিরালা বাগমারা এলাকার আব্দুর রহমানের পুত্র মোঃ ইমরান আলী মোল্লা (১৯) ও তাদের নিকট আত্মীয় গোলখালি গ্রামের সামাদ গাজীর পুত্র মোঃ শফিকুলের বিরুদ্ধে পরস্পর যোগসাজশে একই উদ্দেশ্যে সাধনের জন্য ভিকটিমকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে জবাই করে হত্যা করার পর লাশ পুকুরের মধ্যে ফেলে ঘটনা ভিন্নখাতে প্রবাহিত করার অপচেষ্টা করায় পেনাল কোডের ৩০২/২০১/৩৪ ধারার অভিযোগ প্রাথমিকভাবে প্রমাণিত হয়েছে।

উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের সাথে এম/ই দাখিল পূর্বক মতবিনিময়কালে কর্তৃপক্ষ আমার তদন্তের সাথে একমত পোষণ করেন বলে চার্জশিটে সিআইডি’র তদন্তকারী কর্মকর্তা পুলিশ পরিদর্শক শেখ শাহাজান উল্লেখ করেন।

সংবাদটি শেয়ার করার জন্য অনুরোধ করা হলো

এ ধরনের আরো সংবাদ

© All rights reserved by www.banglardinkal.com (Established in 2017)

Hwowlljksf788wf-Iu