শনিবার, ১৩ অগাস্ট ২০২২, ০৫:৫১ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
খুলনার বৃক্ষমেলায় প্রায় ৪৯ লাখ টাকার  চারা বিক্রি রূপসায় চিংড়ির পঁচা মাথার গন্ধে মারাত্নক পরিবেশ দুষন, জনজীবন অতিষ্ঠ অবৈধ সরকার অর্থনীতিসহ সার্বিক পরিস্থিতিতে চলতি মাসও টিকে থাকতে পারবে না : বিএনপি রামপাল বিদ্যুৎ কেন্দ্রের চুরি হওয়া মালামালসহ ০৪ চোর আটক রূপসায় চিংড়িতে অপদ্রব্য পুশ করার সময় হাতেনাতে আটক, ৭জনের কারাদন্ড জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে নগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের বিশেষ বর্ধিত সভা বিশ্বকে বাংলাদেশের সক্ষমতা দেখিয়ে দিয়েছেন শেখ হাসিনা : সিটি মেয়র শিক্ষকদের পাণ্ডিত্য, গবেষণা ও ব্যক্তিত্ব শিক্ষার্থীরা অনুসরণ করে কুয়েট ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. কাজী সাজ্জাদ হোসেন মেয়াদকাল শেষ রামপাল কলেজ শিক্ষকের অনিয়মের সংবাদ প্রকাশের জেরে সাংবাদিককে হুমকি, থানায় জিডি

ঈদুল ফিতর উপলক্ষে পাইকগাছায় বিপনন কেন্দ্রগুলোয় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন ও টহল জোরদার

সংবাদদাতার নাম :
  • প্রকাশিত সময় শুক্রবার, ৩১ মে, ২০১৯
  • ৫১৮ পড়েছেন

পাইকগাছা (খুলনা) প্রতিনিধিঃ
মুসলিম সম্প্রদায়ের সর্ব বৃহৎ আসন্ন ঈদুল ফিতরকে সামনে রেখে খুলনার পাইকগাছা উপজেলা প্রশাসন ও থানা পুলিশের পক্ষ থেকে ব্যাপক প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে।

পৌরসদরসহ উপজেলার বড়বড় বিপনন কেন্দ্রেগুলিতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েনসহ টহল পুলিশের ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে। নির্বিঘ্নে যাতে সকলে ঈদের কেনাকাটা করতে পারে এবং শান্তিপুর্ণ পরিবেশে দিবসটি উদযাপন করতে পারে সে কারনে থানা পুলিশের পক্ষ থেকে সকল প্রস্তুতি ইতোমধ্যে সম্পন্ন হয়েছে। এদিকে ঈদ উপলক্ষে শুক্রবার জেলার পাইকগাছা পৌর জিরোপয়েন্টে অস্থায়ী একটি পুলিশ কন্ট্রোল রুম খোলা হয়েছে। যেখানে সার্বক্ষণিক একজন এসআই দায়িত্ব পালন করবেন।

প্রতিবছরই ঈদের কেনাকাটার সময় পৌরসদরসহ উপজেলার বিভিন্ন বাজারের পকেটমার, ছিনতাইকারী, বোরকা পরিহিতা মহিলা ছিনতাইকারী, মলম পার্টির উপদ্রব্য অনেকাংশে বৃদ্ধি পায়। প্রতিবারই ঘটে ছোট বড় অনেক অঘটন। থানা পুলিশ সতর্ক অবস্থানে থাকলেও পুলিশের চোখ ফাঁকি দিয়ে ঘটে এসব অপকর্ম। বুধবার অভিনব পন্থায় টাকা ছিনতাই করে এক ছিনতাইকারী পালিয়ে গেলেও পুলিশের তড়িৎ পদক্ষেপে ঘন্টাখানেকের মধ্যে টাকা উদ্ধার করতে সক্ষম হয়েছে থানা পুলিশ। যদিও যুবক পলাতক রয়েছে।

কয়েকদিন পর মুসলিম সম্প্রদায়ের সর্ববৃহৎ ধর্মীয় উৎসব ঈদুল ফিতর অনুষ্ঠিত হবে। ইতোমধ্যে উপজেলার প্রতিটি বিপনন কেন্দ্রগুলিতে কেনাকাটার ধুম পড়ে গেছে। সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত বিপনন কেন্দ্রগুলিতে ক্রেতাদের ভীড় অনেকাংশে বৃদ্ধি পেয়েছে। ঈদের দিন যত এগিয়ে আসবে ততই বিপনন কেন্দ্রগুলিতে ক্রেতাদের ভীড় আরো বাড়বে। এছাড়া দেশের বিভিন্নস্থান থেকে এলাকার লোকজন এবং আত্মীয় স্বজনরা ঈদ উদযাপন করতে উপজেলায় আসতে শুরু করেছেন। সকলে যাতে নির্বিঘ্নে ও শান্তিপুর্ণ পরিবেশে ঈদ উদযাপন করতে পারেন তার জন্য উপজেলা প্রশাসন ও থানা পুলিশের পক্ষ থেকে ব্যাপক প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। ইতোমধ্যে থানা পুলিশের পক্ষ থেকে পৌরসদরসহ উপজেলার বড়বড় বিপনন কেন্দ্রগুলিতে নিরাপত্তা ব্যবস্থায় সার্বক্ষণিক পুলিশ মোতায়েন ও টহল অব্যাহত রয়েছে।

এর মধ্যেও পুলিশের চোখ ফাঁকি দিয়ে অভিনব পন্থায় ছিনতাইকারীরা তাদের কার্যক্রম চালালেও পুলিশের তড়িৎ পদক্ষেপে ছিনতাইকারীদের প্রচেষ্ঠা সফল হচ্ছে না। এমনই একটি ঘটনা ঘটেছে গত বুধবার। উপজেলার চাঁদখালী ইউপির কমলাপুর গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা খয়বর আলী বেলা সাড়ে বারোটার দিকে পাইকগাছা সোনালী ব্যাংক থেকে ঈদ উপলক্ষে মুক্তিযোদ্ধার সম্মানী ভাতার ১৮ হাজার টাকা উত্তোলন করেন এবং টাকাগুলি পাঞ্জাবির পকেটে করে নিয়ে পৌর সদরের ফলের দোকানের সামনে এসে দাঁড়ান। এ সময় জনৈক ব্যক্তি তাঁর পিঠে বমি করে এবং পাঞ্জাবির পকেট কেটে সব টাকা নিয়ে পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে থানার ওসি মোঃ এমদাদুল হক শেখ মুক্তিযোদ্ধা খয়বার গাজীকে থানায় ডেকে আনেন এবং সব কিছু শুনে বুঝে ও স্থানীয়দের কাছ থেকে তথ্য নিয়ে এসআই অখিল রায় ও অনিশ মন্ডল দ্রুত অভিযান চালালে শিবসা ব্রীজের অপর প্রান্তে হরিখালীর চক এলাকায় ইমন নামের এক যুবক ১৮ হাজার টাকা ফেলে দিয়ে পালিয়ে যায়। টাকা উদ্ধারের পর ওসি মুক্তিযোদ্ধা খয়বার আলী ও তাঁর স্ত্রী হাসিনা বেগমের হাতে সমুদয় টাকা এবং একটি পাঞ্জাবী উপহার দিয়ে পুলিশ ভ্যানে করে মুক্তিযোদ্ধা দম্পত্তিকে বাড়ীতে পৌছে দেন।

ওসি জানিয়েছেন, ইমনকে আটকের সকল প্রচেষ্ঠা অব্যহত রয়েছে। এদিকে ঈদ উপলক্ষে ঘরমুখী যাত্রীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে ও নিরাপত্তা ব্যবস্থা আরো জোরদার করার লক্ষ্যে শুক্রবার সকালে পৌর জিরো পয়েন্টে ওসি মোঃ এমদাদুল হক শেখ একটি অস্থায়ী পুলিশ কন্ট্রোল রুম উদ্ভোধন করেছেন। সার্বক্ষণিক যার দায়িত্বে থাকবেন পালাক্রমে একজন করে এসআই। ওসি জানিয়েছেন, ঈদের সময় যাত্রী হয়রানী ও দুস্কৃতকারীরা যাতে কোন অপরাধ করে পালিয়ে যেতে না পারে সেকারনে এই কন্ট্রোল রুম খোলা হয়েছে। উদ্ভোধনকালে অন্যান্যের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন ওসি (তদন্ত) মোঃ রহমত আলী, সেকেন্ড অফিসার এসআই সাঈদ, এসআই লিয়াকত আলী, এসআই মান্নান ফকির, এসআই মিন্টু, এসআই অখিল রায়, এসআই অনিষ মন্ডল, শ্রমিক নেতা শেখ জাহিদুল ইসলাম, শেখ হিরু, শেখ মিথুন মধু প্রমুখ।

এদিকে উপজেলা নির্বাহী অফিসার জুলিয়া সুকায়না জানিয়েছেন, উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। ইতোমধ্যে পরিষদের প্রক্ষ থেকে সভা করে এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ইউএনও বলেন, ঈদ উপলক্ষে যাকাত সামগ্রী প্রদানের ক্ষেত্রে আগে থেকেই প্রশাসন ও আইন শৃংখলা বাহিনীকে অবহিত করতে হবে এবং বাস ও পরিবহনে অতিরিক্ত ভাড়া না নেওয়া, মটর সাইকেলে দুইয়ের অধিক যাত্রী বহন না করা, আঁতস ও পটকাবাজি ফোটানো থেকে সকলকে বিরত থাকার জন্য তিনি আহবান জানিয়েছেন।

সংবাদটি শেয়ার করার জন্য অনুরোধ করা হলো

এ ধরনের আরো সংবাদ

© All rights reserved by www.banglardinkal.com (Established in 2017)

Hwowlljksf788wf-Iu