মঙ্গলবার, ০৯ অগাস্ট ২০২২, ০৫:২৭ অপরাহ্ন
শিরোনাম
বিশেষ নিবন্ধ : শ্রাবনের চরিত্রহনণ বঙ্গবন্ধু হয়ে ওঠার পেছনের অনুপ্রেরণা বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব বাংলাদেশ-ভারত আমদানি-রফতানি চুক্তির প্রথম ট্রায়ালের পণ্য মোংলায় খালাস : মেঘালয় ও আসামের উদ্দেশ্যে যাত্রা নির্বাচন আসলেই এদেশের কিছু ধান্দাবাজ একত্রিত হয় : তালুকদার খালেক দেশে রিজার্ভ নেই-একদিন দেখবেন শেখ হাসিনাও মসনদে নেই : বিএনপি বঙ্গমাতার গুণাবলী ধারণ করে মেয়েদের এগিয়ে যেতে হবে : খুবি উপাচার্য বঙ্গবন্ধুর বাঙালির মুক্তির মহানায়ক হয়ে ওঠার পেছনে প্রেরণা ছিলেন  বঙ্গমাতা : সিটি মেয়র বঙ্গবন্ধু ছিলেন জাতির কান্ডারি ও রাজনীতির কবি : এসডিএফ চেয়ারম্যান আব্দুস সামাদ বাংলাদেশ-ভারত ট্রানজিট চুক্তি বাস্তবায়নে ভারতের ট্রায়াল জাহাজ মোংলা বন্দরে’ খুলনায় বঙ্গমাতা ফজিলাতুন নেছা মুজিবের জন্মবার্ষিকীতে দু:স্থ্যদের মাঝে সেলাই মেশিন বিতরন

সিপিবি সোনাডাঙ্গা থানা কমিটির মানববন্ধন ও সমাবেশ

সংবাদদাতার নাম :
  • প্রকাশিত সময় সোমবার, ২২ এপ্রিল, ২০১৯
  • ৬৩৮ পড়েছেন

খবর বিজ্ঞপ্তি :

বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি সিপিবি’র সোনাডাঙ্গা থানা কমিটির উদ্যোগে আসন্ন রমযানে দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি প্রতিরোধসহ বিভিন্ন দাবীতে এক মানববন্ধন ও সমাবেশ সোমবার (২২ এপ্রিল) বেলা ১১টায় খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সামনে অনুষ্ঠিত হয়।

সোনাডাঙ্গা থানা কমিটির সভাপতি নিতাই পালের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক রুস্তম আলী হাওলাদারের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন দলের কেন্দ্রীয় সদস্য ও জেলা সভাপতি ডাঃ মনোজ দাশ, কেন্দ্রীয় সদস্য এস এ রশীদ, জেলা নেতা শেখ আব্দুল হান্নান, মহানগর সাধারণ সম্পাদক এড. মোঃ বাবুল হাওলাদার, সাবেক নগর সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান বাবু, দৌলতপুর থানা সভাপতি পূর্ণেন্দু দে বুবাই, খানজাহান আলী থানা সভাপতি রহমান মোল্যা, সদর থানা সাধারণ সম্পাদক এড. নিত্যানন্দ ঢালী, খালিশপুর থানা সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান রাসেল, শ্রমিকনেতা এস এম চন্দন, সাবেক ছাত্রনেতা হুমায়ুন কবির, সোনাডাঙ্গা থানা সিপিবি নেতা মাহফুজুর রহমান মুকুল, নীরজ রায়, পারভীন আক্তার শিলা, শাহিনা আক্তার, সরোজ দাশ পিণ্টু, শরিফুল ইসলাম সেলিম, দীপু গাইন, তুষার বর্মণ, এড. প্রীতিষ মণ্ডল, জয়দেব রায়, পলাশ দাস, মোঃ শুকুর আলী, মোঃ আব্দুল্লাহ, যুব ইউনিয়ন নেতা জামসেদ হাসান জিকু, অশোক মণ্ডল, দীপক ভদ্র, আজিজুল ইসলাম, ছাত্র ইউনিয়ন নেতা উত্তম দাশ, শেখ রবিউল ইসলাম রবি, কৃষ্ণেন্দু বাছাড়, সৌরভ সমাদ্দার, সুমাইয়া বান্না, মোঃ ইয়াসিন প্রমুখ।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, প্রতি বছর রমযান আসলেই একশ্রেণীর অসাধু ব্যবসায়ীরা বেআইনীভাবে নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্য মজুদ করে বাজারে কৃত্রিম সংকট তৈরি করে অবৈধ সিন্ডিকেটের মাধ্যমে ক্ষমতাসীনদের আশ্রয়-প্রশ্রয়ে দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি করে থাকে। ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের অনুভূতিকে পুজি করে প্রশাসনের নাকের ডগায় এহেন ন্যাক্কারজনক কর্মকাণ্ড ঘটে থাকে, যা জনমনে প্রশ্নের উদ্রেক করে। বক্তারা এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট প্রশাসন ও ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। সমাবেশে জেলা প্রশাসককে এ সংক্রান্তে গঠিত টাস্কফোর্সের কার্যক্রম সক্রিয় করে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনার দাবী জানানো হয়। বক্তারা এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট দপ্তরসমূহের বাজার মনিটরিং ব্যবস্থা জোরদার করতে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণের দাবী জানান। দেশের অভ্যন্তরে নারী-শিশু ধর্ষণ, হত্যাসহ সন্ত্রাস-চাঁদাবাজী, লুটপাট মহামারী আকার ধারণ করেছে উল্লেখ করে বক্তারা আইনের শাসনের অনুপস্থিতি ও বিচারকার্যের বিলম্বের কারণে বিচারহীনতার যে সংস্কৃতি চালু হয়েছে সে ব্যাপারে সরকারকে নজর প্রদানের আহবান জানান।

সংবাদটি শেয়ার করার জন্য অনুরোধ করা হলো

এ ধরনের আরো সংবাদ

© All rights reserved by www.banglardinkal.com (Established in 2017)

Hwowlljksf788wf-Iu