শনিবার, ১৩ অগাস্ট ২০২২, ০৬:২২ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
খুলনার বৃক্ষমেলায় প্রায় ৪৯ লাখ টাকার  চারা বিক্রি রূপসায় চিংড়ির পঁচা মাথার গন্ধে মারাত্নক পরিবেশ দুষন, জনজীবন অতিষ্ঠ অবৈধ সরকার অর্থনীতিসহ সার্বিক পরিস্থিতিতে চলতি মাসও টিকে থাকতে পারবে না : বিএনপি রামপাল বিদ্যুৎ কেন্দ্রের চুরি হওয়া মালামালসহ ০৪ চোর আটক রূপসায় চিংড়িতে অপদ্রব্য পুশ করার সময় হাতেনাতে আটক, ৭জনের কারাদন্ড জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে নগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের বিশেষ বর্ধিত সভা বিশ্বকে বাংলাদেশের সক্ষমতা দেখিয়ে দিয়েছেন শেখ হাসিনা : সিটি মেয়র শিক্ষকদের পাণ্ডিত্য, গবেষণা ও ব্যক্তিত্ব শিক্ষার্থীরা অনুসরণ করে কুয়েট ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. কাজী সাজ্জাদ হোসেন মেয়াদকাল শেষ রামপাল কলেজ শিক্ষকের অনিয়মের সংবাদ প্রকাশের জেরে সাংবাদিককে হুমকি, থানায় জিডি

মতিঝিলে বহুমুখী পাটপণ্যের প্রদর্শনী ও বিক্রয় কেন্দ্র উদ্বোধন

সংবাদদাতার নাম :
  • প্রকাশিত সময় বুধবার, ৩ জুলাই, ২০১৯
  • ৬৬৯ পড়েছেন

তথ্যবিবরণী নম্বর :
শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন বলেছেন, সোনালি আঁশ নামে খ্যাত বাংলাদেশের অন্যতম অর্থকরী ফসল পাট। দেশের চার কোটিরও বেশি মানুষ প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে পাট শিল্পের সঙ্গে জড়িত। কাঁচা পাট ও পাটজাত পণ্যের উৎপাদন ও রপ্তানি বৃদ্ধি, দেশের অভ্যন্তরে পাটপণ্যের বহুমুখী ব্যবহার বৃদ্ধি, পাটের ন্যায্যমূল্য নির্ধারণ এবং পরিবেশ রক্ষায় কাজ করছে বর্তমান সরকার।

মন্ত্রী ০৩ জুলাই বুধবার রাজধানীর মতিঝিলে বহুমুখী পাটপণ্যের প্রদর্শনী ও বিক্রয় কেন্দ্র উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, দেশি উদ্যোক্তাদের উৎপাদিত বহুমুখী পাটপণ্য এক জায়গা থেকে প্রদর্শন ও বিক্রির উদ্দেশ্যে এ কেন্দ্র স্থাপন করা হয়েছে। এ কেন্দ্রের মাধ্যমে দেশি-বিদেশি ক্রেতারা একই জায়গা থেকে পছন্দমতো বহুমুখী পাটপণ্য সম্পর্কে ধারণা নিতে এবং তা ক্রয় করতে পারবেন। পাটের হারানো গৌরব ফিরে পেতে এ বহুমুখী প্রদর্শনী ও বিক্রয় কেন্দ্র গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।

মন্ত্রী আরো বলেন, পরিবেশবান্ধব পাটের ব্যবহার বহুমুখীকরণ ও উচ্চমূল্য সংযোজিত পাটপণ্য উৎপাদন, বাজারজাতকরণ ও ব্যবহার বৃদ্ধি ছাড়া শুধু সনাতনী পণ্য উৎপাদনের মাধ্যমে পাটকে বাঁচিয়ে রাখা সম্ভব হবে না। এ উপলব্ধি থেকে বহুমুখী পাটশিল্প বিকাশের লক্ষ্যে ২০০২ সালে জুট ডাইভারসিফিকেশন প্রমোশন সেন্টার (জেডিপিসি) প্রতিষ্ঠা করা হয়। প্রতিষ্ঠানটি পাটের ব্যবহার বহুমুখীকরণের মাধ্যমে উচ্চমূল্য সংযোজিত বহুমুখী পাটপণ্য উৎপাদন, বাজারজাতকরণ ও বিপণনের সুযোগ সৃষ্টি করেছে। ফলে দেশের অর্থনৈতিক ও সামাজিক অবস্থা উন্নয়নে প্রতিষ্ঠানটি গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখতে সক্ষম হয়েছে।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বস্ত্র ও পাট মন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী, বীরপ্রতীক এবং বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব মোহাম্মদ দেলোয়ার হোসেন। এছাড়া পাট অধিদপ্তরের মহাপরিচালক শামসুল আলম, জেডিপিসির নির্বাহী পরিচালক রীনা পারভীন, বাংলাদেশ জুট ডাইভারসিফায়েড প্রোডাক্ট ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যাসোসিয়েশনের আহবায়ক মোঃ রাশেদুল করিম মুন্নাসহ বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয় ও জেডিপিসির কর্মকর্তারা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদটি শেয়ার করার জন্য অনুরোধ করা হলো

এ ধরনের আরো সংবাদ

© All rights reserved by www.banglardinkal.com (Established in 2017)

Hwowlljksf788wf-Iu